চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

হাবিবুলকে ছাড়িয়ে রেকর্ড মাশরাফীর

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে টস জিতে শুরুতে বোলিংয়ে বাংলাদেশ। সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামের ওয়ানডে অভিষেক হল শুক্রবার। টস করতে নেমেই দারুণ একটি রেকর্ড গড়েছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা। লাল-সবুজের জার্সিতে সবচেয়ে বেশি ম্যাচে নেতৃত্ব দেয়ার রেকর্ডে সাবেক অধিনায়ক হাবিবুল বাশারকে টপকে শীর্ষে বসেছেন।

বিজ্ঞাপন

শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে গত মঙ্গলবার সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে হাবিবুলের দারুণ রেকর্ডটির পাশে বসেন মাশরাফী। সঙ্গে প্রথম ম্যাচে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে ২০০তম ওয়ানডে খেলে ফেলার পর শুক্রবার বাংলাদেশের জার্সিতে ২০০তম ওয়ানডে খেলতে নেমেছেন অধিনায়ক। তার ক্যারিয়ারে এখন ওয়ানডে ২০২টি, যার মাঝে দুটি আছে এশিয়া একাদশের হয়ে।

লাল-সবুজের জার্সিতে দুইশর মাইলফলকে নাম লেখানোর দিনেই টাইগার অধিনায়ক বাংলাদেশকে সবচেয়ে বেশি ওয়ানডেতে নেতৃত্ব দেয়ার রেকর্ড গড়লেন।

বিজ্ঞাপন

২০০৪ থেকে ২০০৭ পর্যন্ত ৬৯টি ওয়ানডেতে টাইগারদের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন বর্তমানে নির্বাচক কমিটির সদস্য হাবিবুল বাশার। সিলেটের ম্যাচটি লাল-সবুজদের অধিনায়ক হিসেবে মাশরাফীর ৭০তম ওয়ানডে।

মাশরাফী প্রথমবার নেতৃত্ব পান ২০০৯ সালে। নেতৃত্বের প্রথম টেস্টেই চোট, ছিটকে যাওয়া দল থেকে। ফিরে ওয়ানডেতে প্রথম নেতৃত্ব দেন ২০১০ সাল, ইংল্যান্ড সফরে। পরে আবারও চোট। ফিট হলে নেতৃত্বে ফেরার ডাক আসে আবারও, ২০১৪ সালে। টাইগার ক্রিকেট তখন টানা ব্যর্থতায় নিমজ্জিত। মাশরাফী দায়িত্ব নিয়ে অন্ধকার কাটিয়ে আলোর দিশা দেখান।

২০১৫ সাল থেকে বিস্ময়কর ঊর্ধ্বগামী বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাফল্যরেখা। ২০১৫ অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠা, গত চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে সেমিফাইনালে ওঠা, গত এশিয়া কাপের ফাইনালে খেলা তো আছেই। ভারত, সাউথ আফ্রিকা, পাকিস্তান, জিম্বাবুয়ে, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ জয়ের মতো সাফল্য এসেছে মাশরাফীর নেতৃত্বে।

২০১৪ সালের নভেম্বর থেকে ঘরের মাঠে চলা উইন্ডিজ সিরিজের তৃতীয় ওয়ানডে পর্যন্ত ৬৬ ম্যাচের ৬৩টিতে বাংলাদেশের হয়ে টস করেছেন মাশরাফী। বিশ্রাম ও স্লো-ওভার রেটের নিষেধাজ্ঞার কারণে তিনটি ম্যাচে নামতে পারেননি। এই পথে অধিনায়ক হিসেবে সাফল্যে দেশের সবাইকে টপকে গেছেন। ৬৯ ওয়ানডেতে তার নেতৃত্বে জয় এসেছে ৩৯টি। ৬৯ ম্যাচে হাবিবুলের নেতৃত্বে জয় ছিল ২৯টি।

সাফল্যের এ পরিসংখ্যান আরেকধাপ এগিয়ে নেয়ার পালা। তাতে টাইগারদের সাফল্যের মুকুটে যুক্ত হবে আরেকটি সিরিজ জয়ের পালকও।