চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

হাওর ব্যবস্থাপনায় দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা কেন দরকার

সুনামগঞ্জের হাওরে অকাল বন্যায় ফসলের পাশাপাশি জীববৈচিত্র্যেরও অনেক ক্ষতি হয়েছে। মারা গেছে মাছসহ জলজ প্রাণী ও বিভিন্ন উদ্ভিদ। জলবায়ু পরিবর্তনজনিত এসব ক্ষয়ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে হাওর ব্যবস্থাপনায় দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা নেয়ার কথা বলছেন, বিশেষজ্ঞ ও স্থানীয়রা।

স্থানীয়রা বলছেন, পোকা মাকড় ও রোগ বালাই দমণের জন্য ফসলে ব্যবহৃত বিভিন্ন ধরণের কীটনাশক ও রাসায়নিক পদার্থ পানিতে মিশে এই বিপর্যয় হয়েছে। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হাওরে এখন মাছের আকাল দেখা দিয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এবারের অকাল বন্যায় মারা গেছে প্রায় সব ধরণের জলজ প্রাণী। ক্ষতি হয়েছে উদ্ভিদরাজিরও। স্থানীয়রা বলছেন, পোকা মাকড় ও রোগ বালাই দমণের জন্য ফসলে ব্যবহৃত বিভিন্ন ধরণের কীটনাশক ও রাসায়নিক পদার্থ পানিতে মিশে এই বিপর্যয় হয়েছে।

এ থেকে পরিত্রাণ পেতে হাওর ব্যবস্থাপনায় পরিবর্তন আনার কথা বলছেন বিশেষজ্ঞ ও স্থানীয়রা।

বিজ্ঞাপন

পরিবেশ ও সমাজ উন্নয়ণকর্মী  মো. তাহির আলী তালুকদার বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে পরিবেশের উপর যে নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে ভৌগোলিক অবস্থানের কারণে সেই প্রভাব আরো বেশি কাজ করছে। পাহাড়ি এলাকা হওয়ার কারণে এখানে একটু বৃষ্টি হলেই নিচে পানি চলে আসে। এর ফলে বিভিন্ন ধরণের ক্ষতি হয়।

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে অতিবৃষ্টি ও পাহাড়ি ঢলে পানির উচ্চতা অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে যাওয়ায় এবার ক্ষতির মাত্রা বেড়েছে।

নদী পরিব্রাজক দল নামক সংগঠনের সভাপতি মো. মনির হোসেন বলেন, যেহেতু একটি ক্ষতি হয়ে গেছে তাই এখন একটি দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা দরকার।

জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবেলার জন্য আমাদেরকে টেকসই হাওর ব্যবস্থাপনায় মনযোগী হতে হবে বলেও জানান তিনি।
আবুল কাশেমের ক্যামেরায় বিস্তারিত দেখুন ভিডিও রিপোর্টে: