চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

স্মৃতি ইরানির ঘনিষ্ঠ প্রচারণা সহযোগী দুর্বৃত্তের গুলিতে নিহত

লোকসভা নির্বাচনে উত্তরপ্রদেশের আমেথিতে বিজেপি নেত্রী স্মৃতি ইরানির ঘনিষ্ঠ এক প্রচারণা সহযোগী দুর্বৃত্তের গুলিতে নিহত হয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

সুরেন্দ্র সিং নামের ওই প্রাক্তন গ্রামপ্রধানকে শনিবার গভীর রাতে গুলি করে হত্যা করা হয় বলে জানিয়েছে এনডিটিভি। তিনি স্মৃতির পাশে থেকে লোকসভা নির্বাচনের পুরোটা সময় প্রচারের কাজে সহায়তা করেছিলেন।

পুলিশ জানায়, ওই বিজেপি কর্মীর নিজ বাড়িতে শনিবার আক্রমণ চালায় দুর্বৃত্তরা। পরে লখনউয়ের এক হাসপাতালে তাকে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে তার মৃত্যু হয়।

হামলার উদ্দেশ্য এখনো স্পষ্ট নয়।

বিজ্ঞাপন

আমেথির পুলিশ সুপারিনটেন্ডেন্ট রাজেশ কুমার জানিয়েছেন, শনিবার দিবাগত রাত ৩টার সময় সুরেন্দ্রকে গুলি করা হয়। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে কয়েকজনকে পুলিশি হেফাজতে নেয়া হয়েছে। তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

খুনের ঘটনার পেছনে কোনো পূর্বশত্রুতা বা রাজনৈতিক কলহ থাকতে পারে বলে ধারণা করছেন রাজেশ কুমার।

বার্তা সংস্থা এএনআই জানিয়েছে, স্মৃতি ইরানি ইতোমধ্যে আমেথির উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন। রোববার দিনের কোনো এক সময় সেখানে পৌঁছে তিনি সুরেন্দ্র সিংয়ের পরিবারের সঙ্গে দেখা করবেন।স্মৃতি ইরানি-ঘনিষ্ঠ সহযোগী নিহত

সুরেন্দ্র সিং ছিলেন বারাউলিয়া গ্রামের প্রাক্তন গ্রামপ্রধান। ২০১৫ সালে গ্রামীণ উন্নয়নের জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের একটি কেন্দ্রীয় যোজনা ‘সংসদ আদর্শ গ্রাম যোজনা’র অংশ হিসেবে গ্রামটিতে অন্তর্ভুক্ত করেন প্রাক্তন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী মনোহর পারিকার।

সুরেন্দ্র গ্রামপ্রধানের পদ থেকে সরে এসে বিজেপির নির্বাচন প্রচারে অংশ নিয়েছিলেন। তিনি সক্রিয়ভাবে স্মৃতি ইরানির লোকসভা প্রচারণায় ছিলেন। এমনকি বিজেপি নেত্রী জনসভায় তার প্রশংসাও করেন।

স্মৃতি ইরানি কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীকে ৫৫,০০০ ভোটে হারিয়ে গান্ধীদের পারিবারিক ঘাঁটি বলে পরিচিত আমেথিতে জয়লাভ করেন। গত প্রায় তিন দশকে আমেথিতে হারেনি কংগ্রেস। নির্বাচনে তাদের দেশব্যাপী ব্যর্থতার মধ্যে এই হার আরও অস্বস্তি বাড়িয়ে তোলে।