চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সোহেল তাজের ভাগ্নে অপহরণের জন্য স্থানীয় ব্যবসায়ীকে দায়ী করলেন বাবা

অপহরণের এক সপ্তাহ পরও উদ্ধার হননি সাবেক স্বরাষ্ট্রপ্রতিমন্ত্রী সোহেল তাজের ভাগ্নে সৈয়দ মোহাম্মদ ইফতেখার আলম সৌরভ। এদিকে স্থানীয় এক ব্যবসায়ীকে অপহরণের জন্য দায়ী করেছেন সৌরভের বাবা সৈয়দ ইদ্রিস আলম।

বিজ্ঞাপন

৯ জুন সন্ধ্যা ৭টায় সৌরভকে টেলিফোনে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে চট্টগ্রামের আফমি প্লাজার পাশ থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তিরা অপহরণ করে বলে অভিযোগ করা হয়েছে। পরিবারের অভিযোগ, ফোনে সৌরভকে একটি উচ্চ পদে চাকুরি দেয়ার কথা বলে পাসপোর্ট ও এনআইডি কার্ডসহ দ্রুত আফমি প্লাজার সামনে আসতে বলা হয়। ভিডিও ফুটেজে তা দেখাও গেছে।

এরপর সৌরভের আর কোনো  সন্ধান না পাওয়ায় পরিবারের পক্ষ থেকে পাঁচলাইশ থানায় সাধারণ ডায়রি করা হয়। অভিযোগ পেয়ে সৌরভকে পুলিশ উদ্ধারের চেষ্টা করছে বলে জানিয়েছেন পাঁচলাইশ থানার ওসি আবুল কাশেম ভূঁইয়া।

অপহরণের জন্য সৌরভের বান্ধবীর বাবা ব্যবসায়ী সালেহ আজাদ চৌধুরীকে দায়ী করেছে সৌরভের পরিবার। অবিলম্বে তাদের সন্তানকে উদ্ধারের দাবি জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীর দ্রুত হস্তক্ষেপ চেয়েছেন সৌরভের মা-বাবা।

বিজ্ঞাপন

ছেলেকে ফিরে পেতে সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন অপহৃত ইফতেখার আলমের পরিবার।

এর আগে শুক্রবার সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী সোহেল তাজ ফেসবুকে দেয়া এক স্ট্যাটাসে ঘটনার আড়ালে কারা আছেন, তা তিনি জানেন বলে দাবি করেন। অপহরণকারীদের প্রতি ভাগ্নেকে পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন সোহেল। ফিরিয়ে দেয়া না হলে জনসম্মুখে অপহরণকারীদের পরিচয় প্রকাশের হুমকিও দেন তিনি।

সোহেল তাজের ভাগ্নেকে অপহরণের অভিযোগ
সোহেল তাজের ফেসবুক স্ট্যাটাস

স্ট্যাটাসে সোহেল তাজ বলেছেন: আমার মামাতো বোনের ছেলে (ভাগিনা), সৈয়দ ইফতেখার আলম প্রকাশ (সৌরভ) কে গত রবিবার ৯ জুন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হসপিটালের সামনে থেকে অপহরণ করা হয়েছে। যারা এই ঘটনা ঘটিয়েছে তাদেরকে অনুরোধ করছি সৌরভকে ফিরিয়ে দিতে তার পরিবারের কাছে। অন্যথায় আপনাদের পরিচয় জনসম্মুখে প্রকাশ করা হবে। ঘটনার আড়ালে কারা আছেন তা আমরা জানি।

অবশ্য স্ট্যাটাসটি পরে তিনি সরিয়ে নিয়েছেন।