চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সেন্সর বোর্ডে প্রশংসিত ‘মায়াবতী’, সেপ্টেম্বরে মুক্তি

বিনা কর্তনে সেন্সর সার্টিফিকেট পেল নুসরাত ইমরোজ তিশা ও ইয়াশ রোহান অভিনীত চলচ্চিত্র ‘মায়াবতী’। সেন্সরে বোর্ডে ছবিটি প্রদর্শনীর পর সবাই এই ছবির ভূয়সী প্রশংসা করেছেন বলে চ্যানেল আই অনলাইনকে জানিয়েছেন ছবির নির্মাতা অরুণ চৌধুরী।

রবিবার বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ড বিনা কর্তনে ‘মায়াবতী’কে ছাড়পত্র দেয়ার ঘোষণা করেছে, চ্যানেল আই অনলাইনকে এমনটাই জানিয়েছেন নির্মাতা অরুণ চৌধুরী। তিনি বলেন সেন্সর বোর্ডে ‘মায়াবতী’ প্রদর্শনের সময় যারা ছিলেন, প্রত্যেকেই ছবিটির প্রশংসা করেছেন। বিশেষ করে সেন্সর বোর্ডের অন্যতম সদস্য শাহ আলম কিরণ ছবিটির ভূয়সী প্রশংসা করেছেন।

বিজ্ঞাপন

তারা বলেছেন, সিনেমার মতো একটি সিনেমা হয়েছে ‘মায়াবতী’।

আগামী সেপ্টেম্বরে ছবিটি বড় পর্দায় মুক্তির পরিকল্পনা করছেন নির্মাতা। এমনটা জানিয়ে তিনি বলেন, আগামী সেপ্টেম্বরে বড় পর্দায় ‘মায়াবতী’ মুক্তির পরিকল্পনা করছি। জুলাই থেকে আমার মার্কেটিং টিম ছবিটির প্রমোশনে মাঠে নামছে। আশা করছি ‘মায়াবতী’র খবর বাংলা সিনেমার দর্শকের কানে পৌঁছে যাবে।

‘মায়াবতী’র শুটিং সময়ের দৃশ্য…

‘মায়াবতী’ যৌথভাবে প্রযোজনা করেছে আনোয়ার আজাদ ফিল্মস ও অনন্য সৃষ্টি ভিশন। ছবির গল্প নিয়ে কোনো আভাস না দিলেও ছবিতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করছেন ‘স্বপ্নজাল’ খ্যাত অভিনেতা ইয়াশ রোহান ও ছোট ও বড় পর্দার তুমুল জনপ্রিয় অভিনেত্রী তিশা। ছবিতে এই জুটি ছাড়াও অভিনয় করেছেন রাইসুল ইসলাম আসাদ, মামুনুর রশীদ, দিলারা জামান, ফজলুর রহমান বাবু, আফরোজা বানু, ওয়াহিদা মল্লিক জলি, আব্দুল্লাহ রানা, অরুণা বিশ্বাস, তানভীর হোসেন প্রবাল, আগুন প্রমুখ।

এরআগে নির্মাতা অরুণ চৌধুরী দুই বোনের গল্পে নির্মাণ করেছিলেন ‘আলতা বানু’। ইমপ্রেস টেলিফিল্ম প্রযোজিত চলচ্চিত্রটি দেশব্যাপী মুক্তির পাশাপাশি বিভিন্ন আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবেও প্রদর্শীত হয়েছে। সেই ছবিতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন জাকিয়া বারী মম ও মিলন।