চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সেই বিজ্ঞপ্তি স্পষ্ট করতে সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসনের নতুন বিজ্ঞপ্তি

বিচারাধীন বিষয়ে সংবাদ পরিবেশন থেকে বিরত থাকার অনুরোধ সম্বলিত বিজ্ঞপ্তির স্পষ্টীকরণ করে একটি নতুন বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন।

বিজ্ঞাপন

সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল ড. জাকির হোসেন স্বাক্ষরিত এ নতুন বিজ্ঞপ্তিতে মঙ্গলবার বলা হয়: বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট সবসময় সংবাদপত্রের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী। আদালতের ভাবমূর্তি ও মর্যাদা ক্ষুণ্ণ হয় এবং বিচারকার্য প্রভাবিত হয় এমন সংবাদ পরিবেশন বা প্রচার প্রত্যাশিত নয়। বর্ণিত অবস্থার প্রেক্ষিতে বিগত ১৬ মে জারীকৃত বিজ্ঞপ্তি স্পষ্টীকরণ করা হলো এবং বিষয়টি সংশ্লিষ্ট সকলকে অবহিত করা হলো।

বিজ্ঞাপন

এর আগে গত ১৬ মে বিকেলে সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিচারাধীন বিষয়ে সংবাদ পরিবেশন থেকে বিরত থাকতে অনুরোধ করে একটি বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়।

সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের রেজিস্ট্রার মো: গোলাম রাব্বানী স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়: ইদানিং লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে, কোনো কোনো ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া তাদের চ্যানেলে এবং কোনো কোনো প্রিন্ট মিডিয়া তাদের পত্রিকায় বিচারাধীন মামলা সংক্রান্ত বিষয়ে সংবাদ পরিবেশন, স্ক্রল করছে, যা একেবারেই অনভিপ্রেত। এমতাবস্থায়, বিচারাধীন কোন বিষয়ে সংবাদ পরিবেশন/স্ক্রল করা থেকে বিরত থাকার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।’

সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসনের অনুরোধ সম্বলিত এই বিজ্ঞপ্তি প্রত্যাহারের অনুরোধ জানিয়ে এদিন সন্ধ্যায় প্রধান বিচারপতি বরাবর একটি চিঠি দেয় সুপ্রিম কোর্ট বিটে কর্মরত সাংবাদিকদের সংগঠন ল’ রিপোর্টার্স ফোরাম।

সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসনের বিজ্ঞপ্তিতে সাংবাদিকরা ব্যথিত ও মর্মাহত বলে উল্লেখ করে ল’ রিপোর্টার্স ফোরামের চিঠিতে বলা হয় ওই বিজ্ঞপ্তিটি স্বাধীন সাংবাদিকতার পরিপন্থী। পরবর্তীকালে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে) ও ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিও (ডিআরইউ) এই বিজ্ঞপ্তি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে আলাদা আলাদা বিবৃতি দেয়।