চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সুলতানা কামালের নিরাপত্তায় সাত আন্তর্জাতিক সংগঠনের বিবৃতি 

মানবাধিকার কর্মী, সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা এবং টিআইবির ট্রাস্টি বোর্ডের সভাপতি সুলতানা কামালের নিরাপত্তা এবং তাকে হুমকি দেয়ার ঘটনার সঠিক তদন্ত দাবি করে বিবৃতি দিয়েছে ৭টি আন্তর্জাতিক সংগঠন।

সম্প্রতি একটি টিভি অনুষ্ঠানে দেয়া সুলতানা কামালের বক্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা করে হেফাজতে ইসলাম নামে একটি ধর্মীয় সংগঠন প্রকাশ্যে তাকে গ্রেফতার, মারধর এবং দেশত্যাগের জন্য হুমকি দিয়ে যাচ্ছে।

এই পরিপ্রেক্ষিতে ফোরাম এশিয়া, ফ্রণ্ট লাইন ডিফেন্ডারস, অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল, সাউথ এশিয়ান ফর হিউম্যান রাইটস, এশিয়া প্যাসিফিক ফোরাম অন উইমেন ল’ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট, এসোসিয়েশন অব প্রগ্রেসিভ কমিউনিকেশনস, ইন্টারন্যাশনাল সার্ভিস ফর হিউম্যান রাইটস গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে এবং সুলতানা কামালের নিরাপত্তাসহ ঘটনার তদন্তের দাবি করেছে।

বিবৃতিতে তারা জানিয়েছে: সুলতানা কামালের বক্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা করে হেফাজতে ইসলাম তাকে হুমকি প্রদানসহ যে ধরনের কর্মকাণ্ড চালিয়েছে আমরা সেসম্পর্কে অবগত আছি। এই ঘটনা ছাড়াও বাংলাদেশে মতপ্রকাশের স্বাধীনতা এবং শান্তিপূর্ণ মানবাধিকার রক্ষা কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে বার বার সহিংস ঘটনা ঘটেছে।

তারা বাংলাদেশ সরকারের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেছে, এ ইস্যুতে সরকারের নীরবতা অপরাধ করেও পরিত্রাণ পাওয়ার সংস্কৃতিকে শক্তিশালী করছে। ফলে উগ্রপন্থী গোষ্ঠীগুলো নির্ভয়ে তাদের চরমপন্থী মতামত প্রচার করে যাচ্ছে। এসব কর্মকাণ্ড বাংলাদেশের সংবিধান পরিপন্থী। এগুলো মানবাধিকারের আন্তর্জাতিক মানদণ্ডেরও বিরোধী।

“বাংলাদেশের একজন নাগরিক হিসেবে আইনি সুরক্ষা এবং ব্যক্তিগত জানমালের সুরক্ষা পাওয়ার সাংবিধানিক অধিকার সুলতানা কামালের রয়েছে। একইসঙ্গে তিনি মত প্রকাশের অধিকারও সংরক্ষণ করেন।”

সংগঠনগুলো সুলতানা কামাল ছাড়াও তার পরিবার এবং দেশের অন্যান্য মানবাধিকারকর্মীদের শারীরিক এবং মানসিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহ্বান জানয়েছে।

তারা বলেছে, অবাধ মতপ্রকাশের ক্ষেত্রে মানবাধিকারকর্মীরা যেন রাষ্ট্র বা অন্য কোনও পক্ষের হয়রানির শিকার না হন।