চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সীমান্ত এলাকায় রোহিঙ্গা প্রবেশ আবারও বাড়ছে

চলতি মাসের শুরুর দিকে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সেখানকার সেনাবাহিনীর কড়াকড়ি বাড়ানোর ঘোষণা দেয়ার পর থেকে এক মাসেরও কম সময়ে কয়েক হাজার রোহিঙ্গা দেশ ছেড়ে বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী এলাকাগুলোতে পালিয়ে এসেছে।

বাংলাদেশে বসবাসকারী রোহিঙ্গা নেতারা বুধবার বিভিন্ন গণমাধ্যমকে জানান, গত কয়েক সপ্তাহে নতুন করে সাড়ে ৩ হাজারের বেশি মানুষ মিয়ানমার থেকে সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে ঢুকেছে। এর ফলে নাফ নদী সংলগ্ন কক্সবাজারের জনাকীর্ণ শরণার্থী শিবিরে ভিড় আরও বেড়ে গেছে।

এ বিষয়ে আল-জাজিরা জানায়, সীমান্তবর্তী এলাকাগুলোতে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) এবং বাংলাদেশ কোস্টগার্ডের নিয়মিত টহল আগের চেয়ে আরও কড়াকড়ি করা হয়েছে। চলতি সপ্তাহে শিশুসহ ৩১ রোহিঙ্গাকে নিয়ে বাংলাদেশে ঢোকার চেষ্টা করা একটি নৌকা বিজিবি-কোস্টগার্ড পুশব্যাক করেছে। কিন্তু এত কড়া ব্যবস্থার পরও রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে প্রবেশ অব্যাহত রয়েছে।

নাফ নদীর সবচেয়ে কাছে অবস্থিত বালুখালি ক্যাম্প। বাংলাদেশে পৌঁছে এখানেই বেশিরভাগ শরণার্থী প্রথম ওঠে। সেখানকার অধিবাসী আবদুল খালেক জানান, শুধু আগস্টেই রাখাইনে তার গ্রাম থেকে প্রায় তিন হাজার রোহিঙ্গা ওই ক্যাম্পে উঠেছে।

অন্যদিকে আরেকটি ক্যাম্পের নেতা কামাল হোসেন জানিয়েছেন, গত ১১ দিনে প্রায় ৭শ’টি পরিবার বাংলাদেশে এসে পৌঁছেছে। শরণার্থী শিবিরে আর লোক ধারণের জায়গা না থাকায় খোলা আকাশের নিচে রাত কাটাচ্ছে নতুন রোহিঙ্গা শরণার্থীরা।

FacebookTwitterInstagramPinterestLinkedInGoogle+YoutubeRedditDribbbleBehanceGithubCodePenEmail