চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সালমানের কারাদণ্ড হলে সরাসরি ক্ষতি ৫০০ কোটি!

সালমানের ৫ বছরের কারাদণ্ড

এই মুহূর্তে বলিউডে খানদের জয়জয়কার। আমির, শাহরুখ আর সালমানের উপর ভর করেই চলছে গোটা সিনেমা ইন্ডাস্ট্রি। তাদের ছবি মানেই লগ্নিকারদের চোখ বুজে পয়সা ইনভেস্ট! আর প্রেক্ষাগৃহগুলোতে দর্শকের হুমড়ি খেয়ে পরাও খানদের ছবির জন্যই। কারণ তাদের নামের উপরেই সুপার হিট হয়ে যায় সেখানকার বেশির ভাগ ছবি! আর তিন খানের মধ্যে সালমান খান এখন রয়েছেন মহা সংকটে!

কারণ ‘হাম সাথ সাথ হ্যায়’ সিনেমার শুটিং করতে গিয়ে সালমানসহ আরো কয়েকজন দুটি কৃষ্ণসার হরিণ গুলি করে মারেন। বিপন্ন এই প্রাণী মারা ভারতে নিষিদ্ধ। বন্য প্রাণী সংরক্ষণ আইনের ৯(৫১) ধারায় বিচারক সালমানকে অপরাধী ঘোষণা করেন। বিশ বছর আগে বিরল প্রজাতির দুটি কৃষ্ণসার হরিণ হত্যার দায়ে সালমানকে ৫ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে ভারতের যোধপুর আদালত। এতদিন এ বিষয়ে মুখ না খুললেও বৃহস্পতিবার আদালতে সালমান খান হরিণ শিকারের জন্য ক্ষমা চান। ধারণা করা হচ্ছে, সালমানকে এখন থেকে জেল যাপনই ভোগ করতে হবে!

আর বলিউডের এই ব্যস্ততম নায়কের জেল বাসের প্রসঙ্গ আসতেই বলিউড পড়তে যাচ্ছে অনিশ্চয়তায়। বিশেষ করে প্রযোজক মহলে সালমানের এমন সাজা নিয়ে তৈরি হয়েছে নানা প্রশ্ন। অনেকেই মনে করছেন, সালমান জেলে গেলে ক্ষতি হবে গোটা বলিউডের। কেননা, এরইমধ্যে প্রযোজকরা তার নামে অন্তত ৫০০ কোটি রূপি লগ্নি করেছেন তার আসন্ন সিনেমাগুলোতে। এরমধ্যে তিনটি ছবি বিগ বাজেটের।

এরমধ্যে সম্প্রতি দুবাইয়ে শেষ করেছেন ১০০ কোটি রুপির বাজেটে নির্মিতব্য ছবি ‘রেস ৩’। যা মুক্তি পাওয়ার কথা আগামি ঈদে। সালমান জেলে থাকলে ডাবিং এবং ছবির প্রচারণায়ও ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কা করছেন অনেকে। এছাড়াও আলি আব্বাস জাফরের পরিচালনায় বিগ বাজেটের আরেক ছবি ‘ভারত’-এ অভিনয়ে চূড়ান্ত হয়েছিলেন সালমান। প্রায় দুইশো কোটি রুপি ব্যয়ে নির্মিতব্য এই ছবিটি নিয়ে অনিশ্চয়তায় ছবির প্রযোজক।

রেস৩ ও ভারত ছাড়াও সম্প্রতি ঘোষিত হয়েছিলো বিগ বাজেটের আরো দুই ছবির নাম। একটি ‘কিক’ এবং অন্যটি ‘দাবাঙ্গ’-এর সিক্যুয়াল। শুটিং শুরু না হলেও এই দুটি সিনেমার মুক্তির তারিখও ঘোষণা করেছিলেন নির্মাতারা। তবে সালমান জেলে থাকলে এগুলো আর আলোর মুখ দেখবে কিনা তাও নিয়ে তৈরি হয়েছে অনিশ্চয়তা!

এদিকে যোধপুর আদালত ৫ বছরের সাজা ঘোষণা করেছেন সালমানের। সেই সঙ্গে তাকে জরিমানা করেছেন ১০ হাজার রুপি। শোনা যাচ্ছে, যোধপুর কেন্দ্রীয় কারাগারেই রাখা হবে তাকে।