চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

শেরপুরে বন্যহাতির আক্রমণে কৃষক নিহত

শেরপুর জেলা প্রতিনিধি: শেরপুরে শ্রীবরদী উপজেলার বালিজুড়ি খ্রীস্টানপাড়া গ্রামে পাহাড় থেকে নেমে আসা বন্যহাতির আক্রমণে এক গারো কৃষক নিহত এবং তার স্ত্রী-ছেলে আহত হয়েছে। নিহত ভেরুনা (৪০) ওই এলাকার নিবন নেংমিনজার ছেলে। শনিবার দিবাগত রাত সোয়া বারোটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, বালিজুড়ি এলাকার খ্রীস্টানপাড়া গ্রামে গত তিনদিন ধরে রাতের আধারে প্রায় ৪০/৫০টি বন্যহাতির একটি দল খাদ্যের সন্ধানে পাহাড় থেকে লোকালয়ে নেমে আসে। হাতির দল রাতভর পাহাড়ের ঢালে কৃষকদের চাষ করা ধানক্ষেতে তাণ্ডব চালিয়ে ভোরে আলো ফোটার আগেই আবার পাহাড়ে চলে যায়।

শনিবার সন্ধ্যার পর বন্যহাতির দলটি ফের লোকালয়ে নেমে এলে স্থানীয় লোকজন মশাল-লাঠিসোঠা নিয়ে ইটপাটকেল ছুঁড়ে, হৈ-হল্লা করে হাতি তাড়াতে চেষ্টা করে।

রাত সোয়া বারোটার দিকে হাতির দলটি লোকজনের বসতবাড়ীতে হানা দেয়। এসময় নিজ বসতঘরে স্ত্রী-সন্তান সহ ঘুমিয়ে ছিলেন ভেরুনা। হাতির দলের একটি হাতি হঠাৎ ভেরুনা’র মাটির ঘরটি মাথা দিয়ে গুঁতো দিয়ে ভেঙ্গে ভেতরে প্রবেশ করে ঘুমন্ত ভেরুনা’কে শুড় দিয়ে পেঁচিয়ে ধরে মাটিতে আছাড় দিলে সে গুরুতর আহত হয়। এসময় হাতির আক্রমণে ভেরুনা’র স্ত্রী শৈল দুফু (৩৪) ও তার ছেলে বিজয় মারাত্মক আহত হয়।

স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধার করে শেরপুর জেলা হাসপাতালে নেওয়ার পথে ভেরুনা মারা যায়। পরে বন্যহাতির দলটি রাতেই পাহাড়ে চলে যায়। বর্তমানে হাতির দলটি বালিজুড়ি এলাকার পাশের ভারতের মেঘালয় রাজ্যের পাহাড়ে অবস্থান করছে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

এলাকার লোকজনের মাঝে বর্তমানে হাতি আতংক বিরাজ করছে। শ্রীবরদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খালেদা নাছরিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।