চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘শিল্পীর প্রত্যাশার জায়গা থেকে আমি আহত হয়েছি’

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার নিয়ে ফজলুর রহমান বাবু

‘অভিনয়ে বাংলাদেশে সর্বোচ্চ স্বীকৃতি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। এটা পাওয়ায় আমি নিঃসন্দেহে গর্বিত। এটা শুধু আমার নয়, আমি যে চলচ্চিত্রে অভিনয় করে এই পুরস্কার অর্জন করেছি এটা সেই চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট সকলের প্রাপ্য। কিন্তু শিল্পী হিসেবে ব্যক্তিগত যে প্রত্যাশার জায়গা আছে তাতে আমি একটু আহত হয়েছি।’

বিজ্ঞাপন

কথাগুলো বলছিলেন সদ্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার বিজয়ী তুখোড় অভিনেতা ফজলুর রহমান বাবু। শনিবার দুপুরে চ্যানেল আই কার্যালয়ে এসেছিলেন এই দাপুটে অভিনেতা। অংশ নিয়েছেন চ্যানেল আইয়ের নিয়মিত আয়োজন ‘তারকা কথন’-এ। অনন্যা রুমার প্রযোজনায় অনুষ্ঠানটির উপস্থাপনায় ছিলেন দিলরুবা সাথী।

ইমপ্রেস টেলিফিল্মের আলোচিত চলচ্চিত্র ‘অজ্ঞাতনামা’য় অভিনয় করে শ্রেষ্ঠ সহ-অভিনেতা বিভাগে প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে সদ্যই জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার গ্রহণ করেছেন ফজলুর রহমান বাবু। তবু তার মধ্যে যেনো কিসের আক্ষেপ!

সেই আক্ষেপ গোপন না রেখে বাবু বললেন, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার আমাদের রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ স্বীকৃতি। তাই এটা নিয়ে বাড়তি একটু প্রত্যাশা সবার থাকে। আমারও ছিলো। কারণ, ২০১৬ সালের সবচেয়ে আলোচিত ছবি ‘অজ্ঞাতনামা’। এই বছরে আরো একটি ব্যবসাসফল ছবি ছিলো ‘আয়নাবাজি’। কিন্তু সবদিক বিবেচনায় ‘অজ্ঞাতনামা’ নিয়েই সবার আগ্রহ ছিলো বেশী। আর এই ছবিতেই আমি অন্যতম একটি চরিত্রে অভিনয় করেছিলাম। দর্শক, প্রযোজক কিংবা এই ছবির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অনেকেই ভেবেছিলো হয়তো ‘শ্রেষ্ঠ অভিনেতা’ হিসেবে এই ছবির জন্য আমি পুরস্কারটি পাবো। কিন্তু এই ক্যাটাগরিতে না পেয়ে দুর্ভাগ্যবশত অন্য ক্যাটাগরিতে পেলাম। এটার জন্য একটু খারাপ লেগেছে।

এই ক্ষেত্রে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার যারা প্রদান করেন তাদের আরো একটু দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করলে এমনটি হওয়ার সুযোগ নেই বলেও মতামত ব্যক্ত করেন বাবু। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারতো একটি ইতিহাস। তাই এটার সঙ্গে যারা যারা জড়িত, যারা জুরিতে থাকেন তারা প্রত্যেকেই খুব মেধাবী। তারা এ বিষয়গুলো খুব ভালো জানেন। তাই আমার মনে হয় তারা শুধু একটু মনযোগ দিলে, সমস্ত বিষয়ের উর্দ্ধে উঠে, লবিং কিংবা দলীয় লোকদের কথা বিবেচনা না করে মনোনয়ন দিলে পরিচ্ছন্নতা বজায় থাকে।

বরাবরই মান সম্মত ও সুস্থ ধারার চলচ্চিত্র উপহার দিয়ে আসছে ইমপ্রেস টেলিফিল্ম। বিপরীতে তার প্রাপ্তিও কম নয়। দেশ বিদেশে প্রায়শই সমাদৃত হতে দেখা যায় ইমপ্রেস টেলিফিল্মের ছবিগুলো। সদ্য অনুষ্ঠিত জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারেও মোট ২৫ টি ক্যাটারির মধ্যে ৮টি ক্যাটাগরিতে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করেছে ইমপ্রেস টেলিফিল্মের নির্মিত ছবি, শিল্পী ও কলাকুশলীরা। এরমধ্যে ‘অজ্ঞাতনামা’ ‘সেরা ছবি’র পুরস্কার ছাড়াও মোট তিনটি বিভাগে পুরস্কার অর্জন করে।