চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিশ্চিত হয়েছে: সিইসি

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইতোমধ্যে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিশ্চিত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা।

শনিবার বিকেলে আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে কমিশনের সভা শেষে ইসির মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

বিজ্ঞাপন

সিইসি বলেন, আমি মনে করি লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিশ্চিত হয়েছে। কারণ সব প্রার্থীরা তাদের প্রচারণা চালাতে পারছে।

‘প্রার্থীদের যেখানে যেখানে প্রচারণা চালানো দরকার তারা সেটা করতে পারছেন। প্রচারণা চালাতে কোন বাধা নেই। স্থানীয়ভাবে কোন ফৌজদারি অপরাধ ঘটলে তারা মামলা করবে বা আমাদের কাছে পাঠালে সেটা তদন্ত করব।’

নির্বাচনে সশস্ত্র বাহিনীর ভূমিকা প্রসঙ্গে সিইসি নূরুল হুদা বলেন: সেনাবাহিনী সিআরপিসি অনুযায়ী পরিস্থিতি বিবেচনায় ম্যাজিস্ট্রেটের সহায়তায় যে কাউকে আটক করতে পারবে। তবে তাদের ম্যাজিস্ট্রেসি ক্ষমতা দেওয়া হয়নি।

বিজ্ঞাপন

সারাদেশে আচরণবিধি লঙ্ঘনের সঠিক কোন তথ্য আছে কিনা জানতে চাইলে সিইসি বলেন: আচরণবিধি ভঙ্গের ব্যাপারে অভিযোগ আছে, এ ব্যাপারে সারাদেশে ১২২টি ইলেক্টোরাল ইনকোয়ারি কমিটি আছে, তারা তাদের এলাকাতে এই ইনকোয়ারি কাজগুলো করবে আর আমাদের জানাবে। আর কিছু অভিযোগ রিটার্নিং অফিসারের কাছে যাবে কারণ আমাদের নির্বাচনে অধিকাংশ দায়-দায়িত্ব রিটার্নিং অফিসারের কাছে অর্পিত।

‘যদি ওই এলাকাগুলোতে আচরণবিধি লঙ্ঘন হয়ে থাকে তাহলে রিটার্নিং অফিসার দায়িত্ব নেবে। এছাড়াও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট এর মোবাইল কোর্ট এগুলো দেখবে।’

ড. কামাল হোসেনের ওপর হামলা দুঃখজনক উল্লেখ করে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেন: এটা দুঃখজনক, তিনি একজন সিনিয়র সিটিজেন, প্রখ্যাত ব্যক্তি। তার ওপর হামলা কখনও প্রত্যাশিত নয়। এটা ফৌজদারি অপরাধ হয়েছে। তারা আমাদের কাছে এ নিয়ে আবেদন করেছে। বিষয়টি নির্বাচনী তদন্ত কমিটির কাছে পাঠানো হবে। তদন্ত প্রতিবেদন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নির্বাচনকে কেন্দ্র করে যে গ্রেপ্তার ও হয়রানি হচ্ছে এ বিষয়ে জানতে সিইসি বলেন: যাদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা নেই তাদেরকে যেন অহেতুক হয়রানি না করা হয় সে বিষয়ে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। কাল-পরশুই আইজিপি ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ে চিঠি দেব। আগেও বলেছি নিষ্প্রয়োজনে কাউকে যেন গ্রেপ্তার না করা হয়। যারা নেতা রয়েছেন, তাদের যদি কোনো ফৌজদারি অপরাধ না থাকে তবে যেন অহেতুক হয়রানি না করে।

সংবাদ সম্মেলনে নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার, কবিতা খানম, শাহাদাত হোসেন চৌধুরী, ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ, ইসি জনসংযোগ পরিচালক যুগ্মসচিব এস এম আসাদুজ্জামান উপস্থিত ছিলেন।