চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

লক্ষ্মীপুরে যুবলীগ ও পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষে আহত ১০

মহিউদ্দিন মুরাদ: লক্ষ্মীপুরের লাহারকান্দিতে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও পুলিশের মধ্যে পৃথক সংঘর্ষে পুলিশের ৪ সদস্যসহ ১০ জন আহত হয়েছেন। আহতদের হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এ ঘটনায় যুবলীগের ১২ নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ।

বিজ্ঞাপন

আহতরা হলো- লাহারকান্দি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফজলুর রহমান, যুবলীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন, পুলিশের এসআই আলীম, এএসআই গিয়াস উদ্দিন, কনস্টেবল মেহেদী ও নয়ন।

বিজ্ঞাপন

এ ঘটনায় সদর থানা যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক মাহবুবুর রহমান, থানা কমিটির সদস্য রুপম হাওলাদার, পৌর যুগ্ম-আহ্বায়ক মোঃ মিজান, হ্যামেল ক্বারী, সাইফ উদ্দিন আজগর, আফলু ও মিজান মুহুরীসহ ১২জনকে আটক করেছে পুলিশ। এছাড়াও কয়েকটি মোটর সাইকেল জব্দ করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, পূর্ব বিরোধকে কেন্দ্র করে বুধবার সকাল ৯টার দিকে লাহারকান্দি এলাকায় আওয়ামী লীগ নেতা ফজলু ও যুবলীগ নেতা দেলোয়ার গ্রুপের মধ্যে সংঘষের্র ঘটনা ঘটে। এসময় ফজলু ও দেলোয়ারকে গুরুতর আহত অবস্থায় লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এর মধ্যে দেলোয়ারের অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে নোয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরের কথা বলেন চিকিৎকরা।

পরে যুবলীগ কর্মীরা হাসপাতালে গিয়ে ফজলু গ্রুপের উপর হামলা চালায়। এসময় পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে যুবলীগ কর্মীরা পুলিশের ওপর হামলা চালায়। এতে ৪ পুলিশ সদস্য আহত হন। হামলায় হাসপাতালের বেশকিছু দরজা-জানালাও ভাঙচুর করা হয়।

এরপর পুলিশ জেলা যুবলীগ কার্যালয়সহ বিভিন্ন স্থান থেকে ১২ জনকে আটক করে এবং পৌর মেয়র আবু তাহের ও জেলা যুবলীগের সভাপতি একে এম সালাহ উদ্দিন টিপুর বাসভবন অবরুদ্ধ করে রাখে। পরে পরিস্থিতি শান্ত হয়। এ ঘটনায় বিশেষ বিশেষ স্থানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।