চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রুমিন ফারহানার যে বক্তব্যে সংসদে হট্টগোল

জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত নারী আসনে বিএনপির একমাত্র সদস্য রুমিন ফারহানা চলতি সংসদকে অবৈধ হিসেবে অভিহিত করেছেন৷ তিনি বলেছেন: এই সংসদের মেয়াদ যদি আর একদিনও না বাড়ে তাতে তিনি খুশি হবেন৷

বাজেট অধিবেশনে দেয়া তার এ বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে সংসদে হট্টগোল শুরু হলে শেষ পর্যন্ত স্পিকারের হস্তক্ষেপে তা শান্ত হয়৷

মঙ্গলবার ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট অধিবেশনের প্রথম দিনেই ফ্লোর নিয়ে বক্তব্য দেন বিএনপির এই নেত্রী।

দুই মিনিট সময় পাওয়ার পরই তিনি সংসদে দাঁড়িয়ে বলেন: পরিকল্পিতভাবে মিথ্যা মামলায় খালেদা জিয়াকে কারাগারে রাখা হয়েছে। গণতন্ত্রের জন্য তিনি আজীবন লড়াই করেছেন, জীবনে কোনো নির্বাচনে তিনি পরাজিত হননি। একজন আইনজীবী হিসেবে আমি মনে করি তার বয়স, জেন্ডার ও অবস্থান বিবেচনায় তিনি জামিন পাওয়ার যোগ্য।

দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে সরকার দেশে আসতে দিচ্ছে না বলেও অভিযোগ করেন রুমিন।

সরকারের বিরুদ্ধে সমালোচনায় মুখর থাকা বিরোধী দলের এই সদস্যের বক্তব্যের মধ্যেই স্পিকার তাকে বারবার সময় শেষ হয়েছে বলে সতর্ক করেন। এক পর্যায়ে মাইক বন্ধ করে দেন তিনি।

এসময় বিএনপির শীর্ষ পর্যায় থেকে শুরু করে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা নিয়েও কথা বলেন রুমিন ফারহানা।

স্পিকার মাইক বন্ধ করে দেয়ার পরও অনেকক্ষণ বক্তব্য দিয়ে যান রুমিন। এসময় সংসদে হট্টগোল শুরু হয়। পরে স্পিকারের হস্তক্ষেপে সবাই শান্ত হন।