চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রিয়ালে যেতে নেইমারের ৬ শর্ত!

বার্সেলোনার মতো অ্যান্থনিও গ্রিজম্যানকে দলে পেতে দৌড়ে আছে পিএসজিও। কাইলিয়ান এমবাপে, নেইমারের মতো একাধিক বিশ্বমানের ফরোয়ার্ড থাকার পরও প্যারিসের ক্লাবটি কেনো আরেকজন ফরোয়ার্ডের পেছনে ছুটছে সেটিও একটা প্রশ্ন। খবর, নেইমার কিংবা এমবাপের যেকোনো একজনকে ছেড়ে দিচ্ছে পিএসজি!

বিজ্ঞাপন

ডন ব্যালনের প্রতিবেদন অনুযায়ী, সেই একজনটা নেইমার হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড যেতে পারেন রিয়াল মাদ্রিদে। শুধু তাই নয়, আলোচনা এগোনোরও খবর মিলছে। মাদ্রিদে যাওয়ার শর্ত হিসেবে নেইমার নাকি জুড়ে দিয়েছেন ছয়টি দাবিও!

নেইমারের ছয় শর্তের প্রথমটি হল, রিয়ালে এলে তার জার্সি নাম্বার হতে হবে ৭ অথবা ১০। বর্তমানে মারিয়ানো ডিয়াজ ও লুকা মদ্রিচের গায়ে শোভা পাচ্ছে এ দুই জার্সি। অর্থাৎ, নেইমার এলে হয় বসে পড়তে হবে মারিয়ানো অথবা মদ্রিচের যেকোনো একজনকে, নয়তো জার্সি পরিবর্তন করতে হবে।

বিজ্ঞাপন

দ্বিতীয় শর্ত হিসেবে নেইমার জুড়ে দিয়েছেন মার্সেলোর নাম। ব্রাজিল জাতীয় দলের সতীর্থ ও বন্ধুকে ক্লাবেও পাশে চান নেইমার। গত মৌসুমে বেশিরভাগ সময় ডাগ আউটে কাটানোর পর ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, সামনের মৌসুমেই ছাড়বেন মাদ্রিদ।

নেইমার রিয়াল সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজকে অনুরোধ করেছেন, মার্সেলোর প্রস্থানটা যেন অন্তত ঠেকানো হয়। আর রাফায়েল ভারানে মাদ্রিদ ছেড়ে গেলে পিএসজির ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার মার্কুইনোসকে চান নেইমার। নেইমারকে খুশি করতে ৫০ মিলিয়নে এই ডিফেন্ডারকে আনতে কম কসুর করবেন না রিয়াল সভাপতি!

পঞ্চম শর্তে নাম আছে কাসেমিরোর। বিশ্বের দামি ফুটবলারের চাওয়া রিয়াল ছেড়ে কোথাও যেন না যান ব্রাজিলিয়ান হোল্ডিং মিডফিল্ডার। নেইমারের পছন্দের তালিকায় নেই মার্কো আসেনসিওর নাম। এডেন হ্যাজার্ড কিংবা পল পগবা মাদ্রিদে এলে তাদের সঙ্গে খেলতে আগ্রহী ২৬ বছর বয়সী তারকা।

পিএসজি তারকার সবচেয়ে বড় ইচ্ছা হল, সাদিও মানে কিংবা এমবাপে, কাউকেই পাশে চান না তিনি। নেইমারের মতে, তিনি রিয়ালে গেলে আরেকজন গতিতারকার প্রয়োজন নেই রিয়ালের!