চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রিমান্ডে সবকিছুই অস্বীকার করেছেন সানি

রিমান্ডে থাকা বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটার আরাফাত সানি তার বিরুদ্ধে আনা ব্ল্যাকমেইলিংয়ের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

মোহাম্মদপুর জোনের অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার ফারুখ আহমেদ চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, সানি তার বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন, “নাসরিনই একটা সময় তার ফেসবুক মেসেঞ্জারে ওই সব আপত্তিকর ছবি পাঠিয়ে ছিলেন। তবে, পরে কে বা কারা ওই ছবি গুলো নাসরিনকে পাঠিয়েছে তা জানেন না।”

এখনো সানিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে জানিয়ে ফারুখ আহমেদ বলেন, ‘তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত কিছু বলা যাচ্ছে না। একদিনের রিমান্ড শেষে মঙ্গলবার আবারও তাকে কোর্টে তোলা হবে।’

নাসরিন সুলতানা নামেরেএক তরুণীর অভিযোগের ভিত্তিতে রোববার সকালে রাজধানীর আমিনবাজার থেকে সানিকে গ্রেফতার করে মোহাম্মদপুর থানা পুলিশ।

ওই তরুণীর অভিযোগ, আরাফাত সানি বিয়ের মিথ্যা কাগজপত্র তৈরি করে দীর্ঘদিন তার সঙ্গে থেকেছেন। পরবর্তীতে, স্ত্রীর মর্যাদা দাবি করলে ফেসবুকের মেসেঞ্জারে ‘আপত্তিকর’ ছবি পাঠিয়ে ‘ব্ল্যাকমেইল’র চেষ্টা করেন সানি।

এর আগে নাসরিন সুলতানা তথ্য প্রযুক্তি আইনের ৫৭ (২) ধারায় মোহাম্মদপুর থানায় মামলা করেন।

গ্রেফতারে পর তাকে আদলতে হাজির করে পুলিশ পাঁচ দিনের রিমান্ড আবেদন করলে এক দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।