চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রায়ডুর বোলিং অ্যাকশন নিয়ে সন্দেহ

সিরিজের প্রথম ওয়ানডে ম্যাচে সিডনিতে ব্যর্থ হওয়ার পর দুঃসংবাদ বয়ে এল ভারতের মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান আম্বাতি রায়ডুর জন্য। সন্দেহজনক বোলিং অ্যাকশনের জন্য তাকে অভিযুক্ত করেছেন ম্যাচ অফিসিয়ালরা।

মূলত পার্ট-টাইম স্পিনার হিসেবেই সীমিত ওভারের ক্রিকেটে বল করে থাকেন রায়ডু। শনিবারও সিডনিতে প্রথম ওয়ানডেতে মাত্র দুই ওভার বল করেন। এরপরই ম্যাচ অফিসিয়ালদের আতস কাঁচের নীচে চলে আসে এই ভারতীয় ক্রিকেটারের বোলিং অ্যাকশন। ম্যাচের পর রায়ডুর সন্দেহজনক বোলিং অ্যাকশনের রিপোর্ট সম্পর্কে টিম ম্যানেজম্যান্টকে অবগত করে আইসিসি।

বিশ্ব ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা। আইসিসি’র তরফ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়, ‘রায়ডুর সন্দেহজনক বোলিং অ্যাকশন নিয়ে ম্যাচ শেষে রিপোর্ট করা হয়েছে ম্যাচ অফিসিয়ালদের পক্ষ থেকে। এই ক্রিকেটারের বোলিং অ্যাকশন সম্পর্কে অবগত করা হয়েছে ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্টকে।’

আইসিসি থেকে এও জানানো হয়েছে, আগামী ১৪ দিনের মধ্যে ভারতীয় এই ক্রিকেটারকে বোলিং অ্যাকশনের বৈধতার পরীক্ষায় বসতে হবে। সেই বৈধতার পরীক্ষায় উত্তীর্ন হলে তবেই আবার ক্রিকেটের আন্তর্জাতিক মঞ্চে বল করার সুযোগ মিলবে।

আইসিসি’র নিয়মানুযায়ী কোনও বোলার বল ছাড়ার সময় ১৫ ডিগ্রি বা তার বেশি নিজের কনুই প্রসারিত করতে পারেন না। সেটা না হলেই ম্যাচ অফিসিয়ালদের নজরে চলে আসেন বোলাররা। রায়ডুর ক্ষেত্রেও একই ঘটনা ঘটায় পরীক্ষায় বসতে হবে তাকে।