চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রান্নাঘরের প্রস্তুতি নিন এখনই

বিজ্ঞাপন

ঈদ এসে পড়েছে প্রায়। পুরো ঘর পরিষ্কার করা শেষ। সাজিয়েও ফেলা হয়েছে মনের মতো করে। শুধু রান্নাঘরটাই গোছানো হয়নি। গৃহিণীদের ঈদের দিনের বেশ বড় একটা সময় রান্নাঘরেই কাটে। তাই রান্নাঘরটা একটু আগে থেকেই গুছিয়ে নেয়া উচিত যাতে ঈদের দিনটা রান্নাঘরে মাটি না হয়। কিছু কাজ আগে থেকেই এগিয়ে রাখলে এবং রান্নাঘরটা গুছানো থাকলে ঝটপট করে ফেলা সম্ভব ঈদের রান্না। জেনে নিন ঈদে রান্নাঘরের প্রস্তুতি সম্পর্কে।
১. ঈদের রান্নার জন্য প্রয়োজনীয় মশলাগুলো আগেই প্রস্তুত করে রাখুন। মশলাগুলো হাতের কাছেই সাজিয়ে রাখুন। আরও ভালো হয় যদি মাংসের মশলা, বিরিয়ানির মশলা, চটপটির মশলা এভাবে আলাদা ভাবে মিশিয়ে রাখতে পারেন। তাহলে কাজ অনেকটাই সহজ হয়ে যাবে।
২. ঈদের আগের দিনই কিছু ডেসার্ট আইটেম প্রস্তুত করে ফেলতে পারেন। ফ্রিজে রেখে দিলে ঈদের দিন খেতে খুব ভালো লাগবে। সেই সঙ্গে রান্নার ঝামেলাও কমবে।
৩. ঈদে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র যেমন, ছুরি, বটি, দা, কাঁচি, চপার বোর্ড, হাড়ি পাতিল সবগুলো গুছিয়ে রাখুন।

বিজ্ঞাপন

ঈদে মেহমানের জন্য অনেকগুলো কাপ-পিরিচ, প্লেট, বাটি প্রয়োজন হয়। এগুলো একদিন আগেই ধুয়ে মুছে প্রস্তুত করে রাখুন। এতে ঈদের দিন বাড়তি ঝামেলা কম হবে।
৪. ঈদে বিরিয়ানি রান্না করার পরিকল্পনা থাকলে, বিরিয়ানির মাংসটা আগেই রান্না করে রাখুন। ঈদের কাজ কমে যাবে অর্ধেক।
৫. ঈদের দিন যেই মাংসগুলো রাঁধবেন সেগুলো আগেই ধুয়ে মুছে টুকরো করে ফ্রিজে রেখে দিন। প্রয়োজনে আগের দিন রাতে মেরিনেট করে রাখতে পারেন। এতে ঈদের দিন রান্না হতে সময় কম লাগবে।
৬. ঈদের দিন আপনার রান্নার কাজে অনেক কিছুই প্রয়োজন হয়। ফ্রিজ, ওভেন, রাইসকুকার, ব্লেন্ডার ও ফুড প্রসেসর এসব যন্ত্রপাতি পরিষ্কার করিয়ে রাখুন। প্রয়োজনে সার্ভিসিং করিয়ে নিন।
৭. রান্নার জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণ এখনই  যোগাড় করে রাখুন। কারণ, ঈদের দিন হঠাৎ কিছু প্রয়োজন হলে দোকান খোলা পাওয়া মুশকিল।
ছবি: সংগৃহীত