চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রাঙ্গামাটি ও কক্সবাজারে পাহাড় ধসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১২

অবিরাম প্রবল বর্ষণে পাহাড় ধসে রাঙ্গামাটির নানিয়ারচর উপজেলায় ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে ঘিলাছড়ির ধর্মচান পাড়ায় চারজন, নানিয়ারচর সদরের বড়পুল পাড়ায় চারজন এবং বুড়িঘাট ইউনিয়নের হাতিমারায় দু’জন মারা গেছেন। রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য ত্রিদিব কান্তি দাশ এ কথা নিশ্চিত করেছেন। এদিকে কক্সবাজারের মহেশখালীতে পাহাড় ধসে দু’জনের মৃত্যু ঘটেছে।

তিনি জানান, সোমবার দিবাগত রাতে প্রবল বর্ষণে পাহাড় ধসের ঘটনায় এ প্রাণহানি ঘটে। গ্রামগুলো পাহাড়ি দুর্গম এলাকা হওয়ায় স্থানীয় গ্রামবাসী নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করেছে।

বিজ্ঞাপন

জানা গেছে, এ ঘটনায় বুড়িঘাট ইউনিয়নের হাতিমারা গ্রামে পাহাড় ধসের ঘটনায় আরও ১ জন নিখোঁজ রয়েছে।

জানা যায়, কয়েক দিনে টানা ভারী বর্ষণে রাঙ্গামাটির নানিয়ারচর উপজেলার ধর্মচান পাড়ায় ও বড়পুল পাড়ায় পাহাড় ধসে মঙ্গলবার সকালের দিকে পাহাড় ধসে মাটি চাপা পড়ে ৮ জনের ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয়। এ হাতিমারা গ্রামে ৩ জন নিখোঁজ রয়েছেন।

নিহতরা হলেন-বড়পুল পাড়া এলাকায় একই পরিবারের সুরেন্দ্র লাল চাকমা (৪৮), স্ত্রী রাজ্য দেবী চাকমা (৪৫) ও মেয়ে সোনালী চাকমা (০৯), রুমেল চাকমা (১২), ধর্মচান পাড়া ফুল দেবী চাকমা, ইতি চাকমা, দুই বছরের শিশু, আরো একজন অজ্ঞাত।

বিজ্ঞাপন

এছাড়া হাতিমারা এলাকায় রীতা চাকমা ও রিটেন চাকমা ও অপর একজন নিখোঁজ রয়েছে। স্থানীয় লোকজন নিখোঁজদের উদ্ধার কাজ চালাচ্ছে। দমকল বাহিনী ও পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গেছে।

নানিয়ারচর থানার ওসি আব্দুল লতিফ জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যাচ্ছে।

রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য ও নানিয়ারচর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ত্রিদিব কান্তি দাশ পাহাড় ধসে দুটি গ্রামে ৮ জনের মৃত্যুও কথা স্বীকার করেছেন।

এদিকে কক্সবাজারের মহেশখালীতে ভারী বৃষ্টিপাতে পাহাড় ধসে মাটি চাপায় এবং উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে গাছ চাপায় দুইজনের মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার সকালের দিকে মহেশখালীর হোয়ানক ইউনিয়নের পানিরছড়া এলাকা এবং উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পের তেলিপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে জানান সংশ্লিষ্টরা।

এতে নিহত হয়েছেন মহেশখালী উপজেলার হোয়ানক ইউনিয়নের পানিরছড়া মতিবর পাড়ার এলাকার বাসিন্দা আলী চাদেঁর ছেলে কৃষক মো. আবুল কালাম প্রকাশ বাদশা মিয়া (৪৮) এবং উখিয়ার বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের জামতলী এলাকার হোসেন আহমদের ছেলে মোহাম্মদ আলী (২০)।