চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রমজানেও চাই সুস্থ ত্বক

রমজান মাসে ইফতারে প্রচুর ভাজা-পোড়া খাবার খাওয়া হয়। আবার সারা দিন পানিও পান করা যায় না। আর ইফতারের পর আলসেমি করে পানি পান করা হয় না। ফলে পানির অভাবে ত্বকের উজ্জ্বলতা হারিয়ে যায় এবং রুক্ষ হয়ে যায়। সাথে দেখা দেয় ব্রণ সমস্যা। তাই এই সময়ে ত্বকে প্রয়োজন বাড়তি যত্ন। জেনে নিন রমজানে ত্বকের যত্ন সম্পর্কে।

প্রচুর পানি পান
রমজান মাসে যেহেতু সেহরি থেকে ইফতার পর্যন্ত পানি পান করার সুযোগ নেই তাই ইফতারের পর প্রচুর পরিমাণে পানি খেতে হবে। নাহলে শরীরে পানি শূন্যতা দেখা দিবে। ফলে ত্বক রুক্ষ হয়ে যাবে এবং ব্রণ সমস্যা দেখা দিবে। পানি ছাড়াও প্রচুর ফলের রস, লেবুর শরবত, ডাবের পানি খেতে পারে। এতে শরীরের পানির অভাব পূরণ হবে।

অতিরিক্ত মুখ ধোবেন না
রমজান মাসে শরীরে পানির অভাবের কারণে এমনিতেই ত্বক রুক্ষ থাকে। তাই এসময়ে ফেসওয়াস দিয়ে অতিরিক্ত মুখ ধোঁয়ার অভ্যাস কিছুটা কমিয়ে ফেলুন। দিনে দুই বারের বেশি ফেসওয়াস ব্যবহার করবেন না। প্রতিবার মুখ ধোঁয়ার পর ভালো ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন।

রসালো ফল এবং শাক-সবজি
অনেকেই ইফতারের পরে একবারে সেহরি করেন। সেহরিতেও শাকসবজি তেমন না খেয়ে শুধু মাংস দিয়ে খেয়ে উঠে পড়েন। এতে পুষ্টির অভাব দেখা দেয় এবং ত্বক নিষ্প্রাণ হয়ে যায়। তাই এই সময়ে খাবার নির্বাচনে প্রয়োজন বাড়তি সতর্কতা। প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট জাতীয় খাবার খেতে হবে এসময়ে। মৌসুমি ফল, বাদাম, ডার্ক চকলেট এবং আনার রাখুন খাবার তালিকায়। ইফতারে তেলে ভাজা খাবার এড়িয়ে চলুন এবং সেহরিতে শাক-সবজি খান প্রচুর পরিমাণে।

সপ্তাহে অন্তত একটি ফেস-মাস্ক
যত ব্যস্ততাই থাকুক, সপ্তাহে অন্তত একটি বা দুটি ফেস-মাস্ক ব্যবহার করুন। সেই সাথে সপ্তাহে দুইবার স্ক্র্যাবিং করুন। এতে মৃত-কোষ দূর হবে এবং ত্বকের উজ্জ্বল দেখাবে। স্ক্র্যাবিং এরপর রোমকূপ বন্ধ করার জন্য অবশ্যই ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলবেন। আল-আরাবিয়া।

FacebookTwitterInstagramPinterestLinkedInGoogle+YoutubeRedditDribbbleBehanceGithubCodePenEmail