চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

যশোর রোডের গাছগুলো না কাটার দাবি

এখনও যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের দু’পাশের গাছগুলোকে রেখে দেয়ার পক্ষে স্থানীয়রা। একইসঙ্গে নতুন যে সড়ক নির্মাণ হবে তার দুই পাশে সবুজ বেষ্টনী গড়ে তোলার দাবিও তাদের।

এশিয়ান হাইওয়ের সাথে সংযুক্তকারি এ আন্তর্জাতিক মহাসড়কটি চার লেনে উন্নীত করতে দু’পাশের প্রায় আড়াই হাজার পুরনো গাছ কেটে ফেলার সিদ্ধান্ত হয়েছে এরই মধ্যে।

মহান মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিবিজড়িত ‘যশোর রোড’র দু’ধারের এ প্রাচীন গাছগুলো না কেটে রাস্তা প্রশস্তকরণ সম্ভব নয় বলে চূড়ান্তভাবে জানিয়ে দেয় সড়ক বিভাগের বিশেষজ্ঞরা। এরপরই যশোরে উচ্চপর্যায়ের একসভায় গাছগুলো কেটে ফেলার সিদ্ধান্ত হয়।

যশোর জেলা প্রশাসক মো. আশরাফ উদ্দিন বলেছেন: যোগাযোগ ব্যবস্থার সার্বিক উন্নয়নের স্বার্থে গাছগুলো কেটে ফেলার সুপারিশ করা হয়েছে। জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাইফুজ্জামান পিকুল বলেন: দেশের স্বার্থে, দেশের মানুষের স্বার্থে এই গাছগুলো কর্তন ছাড়া কোন উপায় নেই, তাই গাছগুলো কেটে ফেলতে হবে। তবে স্থানীয়রা বলছেন, ১শ’ ৭৭ বছরের ইতিহাস জড়িয়ে থাকা গাছগুলো রেখেই রাস্তা প্রশস্ত করার কথা।

একইসঙ্গে দাবি উঠেছে সড়ক প্রশস্ত করার পর এর পাশে সবুজ বেষ্টনী গড়ে তোলার। তারা বলছেন, সড়কের পাশে গাছ থাকলে একদিকে যেমন এর সৌন্দর্য বাড়ে, তেমনি রক্ষা হয় পরিবেশের ভারসাম্যও।

আকরামুজ্জামানের রিপোর্টে দেখুন রিস্তারিত: