চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মিয়ানমারের বিরুদ্ধে আইসিজেতে যাবে ওআইসি

রোহিঙ্গা ইস্যুতে বড় ধরনের কূটনৈতিক সাফল্যের অংশ হিসেবে অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কো-অপারেশনের (ওআইসি) সর্বসম্মতিক্রমে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক ন্যায়বিচার আদালতে (আইসিজে) আইনগত পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে।

রোহিঙ্গাদের নৈতিক অধিকার প্রতিষ্ঠা, গ্রহণযোগ্যতা ও ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতেই এই পদক্ষেপ নিচ্ছে ওআইসি।

দীর্ঘ আলোচনার পর মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের প্রতি মানবাধিকার লংঘন এবং মানবতার বিরুদ্ধে হয়ে যাওয়া অপরাধগুলোর গ্রহণযোগ্যতা নিয়েও আইসিজেতে কথা বলার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

সোমবার বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, গাম্বিয়া উচ্চ পর্যায়ের মন্ত্রীদের কমিটি এই প্রক্রিয়া পরিচালনা করবে।

গত ১০ ফেব্রুয়ারি গাম্বিয়ার সহায়তায় বান্জুলে এই কমিটির প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় আন্তর্জাতিক আইনের অধীনে আইনগত অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণের পরামর্শ দেয়া হয়। বিশেষ করে তা গণহত্যা বিষয়ক চুক্তি ও অন্যান্য মানবাধিকার আইনের মূলনীতি অনুসারে।

সর্বসম্মতিতে গৃহীত এই পদক্ষেপ নিয়ে ওআইসি একটি নজির তৈরি করে। যেখানে মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ সংঘটিত হয়েছে, সেখানে ন্যায়বিচারের আইনগত ধাপ তৈরি এবং মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের ভূমিতে রোহিঙ্গাদের আইনগত অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য।

কমিটির সিদ্ধান্ত অনুসারে পূর্ণাঙ্গ প্রস্তাবেও সম্মতি দেওয়া হয়। আবুধাবিতে ৪৬তম পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সম্মেলনে তা চূড়ান্ত সেশনে গৃহীত হয়।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন ওই সম্মেলনে বাংলাদেশের পক্ষে উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধিদলের নেতৃত্বে দেন।