চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মিশরে ইন্টারনেট নিয়ন্ত্রণে নতুন কঠোর আইন

মিশরে ইন্টারনেট ব্যবহারের ওপর কঠোর নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠায় নতুন একটি আইনে সাক্ষর করেছেন প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাত্তাহ আল সিসি।

বিবিসি জানায়, কোনো ওয়েবসাইটকে যদি জাতীয় নিরাপত্তা বা অর্থনীতির জন্য হুমকি মনে করা হয় তবে নতুন এই আইনে তা ‘‘সাইবার অপরাধ’’ হিসেবে গণ্য হবে এবং বন্ধ করে দেয়া হবে।

বিজ্ঞাপন

এছাড়া এসব সাইট পরিচালনা কিংবা শুধু ব্যবহারে অভিযুক্ত ব্যক্তির জেল-জরিমানা হতে পারে বলে বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

কর্তৃপক্ষ জানায়, অস্থিতিশীলতা ও সন্ত্রাস দমনে এই আইনের প্রয়োজন। তবে মানবাধিকার গোষ্ঠীগুলোর অভিযোগ, সরকার দেশের সকল রাজনৈতিক ভিন্নমত নির্মূলের চেষ্টা করছে।

বিজ্ঞাপন

কায়রোভিত্তিক অ্যাসোসিয়েশন অফ ফ্রিডম অফ থট অ্যান্ড এক্সপ্রেসন জানায়, এই আইন প্রণয়নের আগেই ইতোমধ্যে ৫শ ওয়েবসাইট বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

দেশটির সংসদে গত মাসেও একটি আইন পাস হয়েছে এবং তাতে বলা হয়েছে, যদি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের কোনো অ্যাকাউন্টের ফলোয়ার সংখ্যা পাঁচ হাজারের বেশি হয়, তবে তা পর্যবেক্ষণের আওতায় আনা হবে। তবে প্রেসিডেন্ট সিসি এখনও আইনটি অনুমোদন দেননি।

প্রতিনিধিরা বলছেন, দেশটিতে সড়কে মিছিল সমাবেশসহ প্রতিবাদের সব মাধ্যম ইতোমধ্যে বন্ধ করা হয়েছে। ইন্টারনেট ছিল দেশটিতে ভিন্নমত পোষণের শেষ মাধ্যম।

গত মাসে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ এক সতর্ক বার্তায় বলেছে, মিশরে সন্ত্রাসবিরোধী ও জরুরী আইনের ব্যবহার এবং সাংবাদিক, অধিকারকর্মী, সমালোচনাকারীদের ওপর আদালতের অন্যায় বিচার দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।