চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মিশরের সমাধিস্থলে মিলল ৫০টি মমি

মিশরের একটি প্রাচীন সমাধিক্ষেত্র থেকে টলেমিক যুগের অন্তত ৫০টি  মমি আবিষ্কার করেছে দেশটির প্রত্নতত্ত্ব বিভাগ।

পুরাতত্ত্ব বিভাগের মন্ত্রী খালেদ বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, একটি ভূগর্ভস্থ কক্ষ থেকে প্রাপ্তবয়স্কসহ, শিশু ও পশুদের এসব মমি উদ্ধার হয়।

মিশরের রাজধানী কায়রো নগরীর দক্ষিণে মিনিয়া নামক একটি স্থানে সন্ধান পাওয়া যায় এই সমাধিক্ষেত্রটি। প্রত্নতাত্ত্বিকদের মতে, এটি টলেমি শাসনকালের (৩০০ খ্রিস্টপূর্বাব্দ ও পরবর্তী)।

তারা বলেছেন, ‘৫০টি মমি আবিষ্কার হয়েছে, যার মধ্যে ১২জন শিশু এবং ছয়টি প্রাণি। বাকিরা সবাই প্রাপ্তবয়স্ক পুরুষ ও মহিলা। মমিগুলো প্রায় ত্রিশ ফুট গভীর থেকে উদ্ধার করা হয়।যাদের বেশির ভাগ ছিলো মোড়ানো, পাথর ও কাঠের কফিনের ভিতরে। এ বিষয়ে এখনো বিস্তারিত জানা যায়নি। তবে ধারণা করা হচ্ছে এগুলো সাধারণ কোনো মমি নয়।’

প্রাচীন মিশরে পিরামিডের মধ্যে মৃত ব্যক্তিদের মমি করে রাখার বিষয়টি অঙ্গাঙ্গীভাবে যুক্ত। এই প্রথাটি আলেকজান্ডার দ্য গ্রেটের উত্তরাধিকারী টলেমির রাজত্বকালে জুড়ে পালন হয়েছিল ব্যাপকভাবে।

৩২৩ খ্রিষ্ট পূর্বাব্দ থেকে ৩০ খ্রিষ্ট পূর্বাব্দ পর্যন্ত স্থায়ী হয় এই রাজত্ব।