চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মারা গেছেন নোবেলজয়ী সাহিত্যিক নাইপল

নোবেলজয়ী বিশ্বখ্যাত ব্রিটিশ সাহিত্যিক ভি এস নাইপল মারা গেছেন। লন্ডনে নিজ বাসভবনে ৮৫ বছর বয়সে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

বিবিসি জানায়, এক বিবৃতিতে নাইপলের স্ত্রী নাদিরা নাইপল বলেছেন, মৃত্যুর সময় তার স্বজন ও ভালোবাসার মানুষেরা তাকে ঘিরে রেখেছিল। অসাধারণ সৃজনশীলতা ও উদ্যমরে মধ্য দিয়ে একটি পূর্ণাঙ্গ জীবন শেষে চলে গেলেন তিনি।

১৯৩২ সালে ত্রিনিদাদের অধিবাসী এক ভারতীয় পরিবারে জন্ম হয় বিদ্যাধর সূর্যপ্রসাদ নাইপলের। বেশ অর্থ সংকটের মধ্যে বড় হয়েছেন তিনি। ১৮ বছর বয়সে নাইপল অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কলারশিপ পেয়ে েইংল্যান্ডে পড়তে চলে যান।

বিজ্ঞাপন

নাইপলের লেখালেখির শুরু ১৯৫০’র দশকে। অক্সফোর্ডে থাকা অবস্থায়ই প্রথম উপন্যাস লেখেন তিনি, যদিও সেটা প্রকাশিত হয়নি। ১৯৫৪ সালে বিশ্ববিদ্যালয়ের পাট চুকিয়ে তিনি লন্ডনের ন্যাশনাল পোর্ট্রেট গ্যালারিতে ক্যাটালগার হিসেবে চাকরি নেন।

নাইপলের প্রথম প্রকাশিত উপন্যাস ১৯৫৫ সালে লেখা ‘দ্য মিস্টিক মসিয়ের’। প্রথম বছর সাড়া ফেলতে না পারলেও পরের বছরই এর জন্য তিনি সাহিত্যে প্রথম পুরস্কারটি পান। সেটি ছিল তরুণ লেখকদের জন্য জন লিউলিন রাইস মেমোরিয়াল প্রাইজ।

ক্যারিয়ারের বিভিন্ন ধাপে অসংখ্য পুরস্কার ও সম্মাননা অর্জন করেছেন তিনি। ‘আ হাউজ ফর  মি. বিশ্বাস’, ‘ইন আ ফ্রি স্টেট’ এবং ‘আ বেন্ড ইন দ্য রিভার’-এর মতো বহু বিশ্বনন্দিত উপন্যাসের রচয়িতা তিনি।

১৯৮৯ সালে ভি এস নাইপল ব্রিটেনের রাণী এলিজাবেথের কাছ থেকে ‘নাইট’ উপাধি লাভ করেন। আর ২০০১ সালে জয় করেন সাহিত্যে নোবেল।