চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মসজিদের মাইকে ঘোষণা: রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কী হয়েছিল?

কক্সবাজারের উখিয়ার বালুখালী ক্যাম্পে শুক্রবার গভীর রাতে মসজিদের মাইকে ‘ডাকাত’ বলে ঘোষণা দিয়ে ৪ বাংলাদেশিকে পিটিয়ে আহত করেছে রোহিঙ্গারা। এ ঘটনায় নিখোঁজ রয়েছে ২ জন। এ ঘটনায় ২ রোহিঙ্গাকে আটক করেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার গভীর রাত ১ টার দিকে উখিয়া উপজেলার পালংখালী ইউনিয়নের বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এ ঘটনা ঘটে বলে জানান উখিয়া থানার ওসি মো. আবুল খায়ের।

পুলিশ জানায়, আহত বাংলাদেশিরা টিউবঅয়েল শ্রমিক। তারা রাত ১টার দিকে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে টিউবঅয়েল লাগাতে গেলে রোহিঙ্গারা আতঙ্কিত হয়ে পড়ে। এসময় তারা মসজিদের মাইকে ডাকাত ডাকাত বলে চিৎকার করলে রোহিঙ্গারা বাংলাদেশি শ্রমিকদের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে।

বিজ্ঞাপন

পরে পুলিশের সহায়তায় আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

তবে আহতদের নাম ও পরিচয় নিশ্চিত করতে না পারলেও আহতদের কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প সংলগ্ন আন্তর্জাতিক বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা এমএসএফ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

কক্সবাজার জেলা পুলিশের মুখপাত্র ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আফরুজুল হক টুটুল বলেন, শুক্রবার গভীর রাত ১ টার দিকে উখিয়ার বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্প এলাকায় মসজিদের মাইকে ‘ডাকাত সন্দেহে’ স্থানীয় বাংলাদেশি টিউবঅয়েল শ্রমিকদের উপর রোহিঙ্গারা হামলা চালায়। এতে ৪ জন আহত হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার করে কুতুপালং এলাকার এমএসএফ হাসপাতাল সহ স্থানীয় আরেকটি ক্লিনিকে ভর্তি করে।

তিনি বলেন: আহতরা ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে ২ জনকে কুতুপালং এলাকার এমএসএফ হাসপাতালে এবং অপর ২ জনকে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় ২ স্থানীয় অদিবাসী নিখোঁজ রয়েছে।

এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ ভোর রাতে ২ রোহিঙ্গাকে আটক করেছে। নিখোঁজদের উদ্ধার আর দোষীদের গ্রেপ্তারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে বলে জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার।