চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ভোলায় পুলিশের সঙ্গে ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষে ৩০ জন গুলিবিদ্ধ

ভোলার মনপুরায় পুলিশের সঙ্গে ব্যবসায়ীদের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে পুলিশের গুলিতে ৩০ জন আহত হয়েছে। সংঘর্ষে পুলিশ, সাংবাদিক এবং পথচারীসহ অর্ধশতাধিক আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে ৩০ জন গুলিবিদ্ধকে মনপুরা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ২২ ফেব্রুয়ারি বুধবার সকালে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

মনপুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি ) শাহীন খাঁনের সঙ্গে হাজীর হাট বাজারের ফল ব্যবসায়ী হারুনের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে ওসি ক্ষীপ্ত হয়ে হারুন, হাসান ও আঃ রহমানের ফলের দোকানে গিয়ে ব্যবসায়ীদের মারধর করে এবং দোকান বন্ধ করে দেয়। বিষয়টি জানতে পেরে বাজার ব্যবসায়ীরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে  হাজীর হাট বাজারের সকল দোকান পাট বন্ধ করে দিয়ে প্রতিবাদ জানায়। এর প্র্রেক্ষিতে ওসি ক্ষিপ্ত হয়ে বাজারে জড় হওয়া ব্যবসায়ীদের উপর চড়াও হয়, সেসময় সংঘর্ষ শুরু হলে পুলিশ গুলি বর্ষণ করে। এ ঘটনায় পুলিশ, ব্যবসায়ী, সংবাদিক এবং পথচারীসহ অর্ধশতাধিক আহত হয়েছে ও  আহতদের মধ্যে গুলিবিদ্ধ ৩০ জনকে মনপুরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

হাজীর হাট বাজার ব্যবসায়ী কমিটির সাধারন সম্পাদক মোঃ মহিউদ্দিন বলেন,  ওসি’র অতিরঞ্জিত দুর্ব্যবহারের কারণে এই ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটেছে। বর্তমানে ব্যবসায়ীরা আতঙ্কে আছেন। এই ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীদের ক্ষতিপূরণ এবং সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে ওসির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য দাবি করছি।

মনপুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি ) শাহীন খাঁন বলেন, রাস্তার উপর ফল ব্যবসায়রা অবৈধভাবে ফল বিক্রি করায় আমি তাদেরকে সরে যাওয়ার জন্য বলেছি। পরে ব্যবসায়ীরা আমার উপর ক্ষেপে যায়।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মাহমুদুর রশীদ বলেন, হাসপাতালে ৩০-৩১ জন  চিকিৎসা নিয়েছেন। তবে আতঙ্কে সবাই হাসপাতাল ছেড়ে চলে গেছেন। গুরুতর ১ জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য অন্যত্র পাঠানো হয়েছে।

বর্তমানে বাজার এলাকায়  উত্তেজনা ও সাধারণ ব্যবসায়ীদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

 

 

FacebookTwitterInstagramPinterestLinkedInGoogle+YoutubeRedditDribbbleBehanceGithubCodePenEmail