চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ভাষা ভালোবাসা

বিভিন্ন ভাষায় পারদর্শিতা অর্জনের ক্ষেত্রে বাংলাদেশিরা সহজেই কয়েক ধাপ এগিয়ে থাকতে পারে তা কি কখনও লক্ষ্য করেছেন? নিজের অভিজ্ঞতা থেকে বলতে পারি, বাংলা ভাষাভাষী হওয়ার প্রধান সুবিধা – বাংলা কেবল শ্রুতিমধুর একটি ভাষাই নয়, বাংলায় এমন অনেক ধ্বনি আমরা উচ্চারণ করি যা অন্যান্য ভাষাভাষীদের জন্য বেশ কঠিন। যেমন, ত/থ/ঠ, ব/ভ, র/ড়, ক/খ বর্ণমালার দিকে তাকিয়ে দেখুন, যেমন ফ্রেঞ্চে ট বা ড ধ্বনিটি নেই, আবার ইংরেজিতে ত, দ এর মত নরম ধ্বনিগুলোও নেই। অন্য ভাষায় পারদর্শিতা অর্জনের পূর্বশর্ত হল নিজের মাতৃভাষার উচ্চারণ আর প্রয়োগ রপ্ত করা।

ইংরেজি গান শুনে আর মুভি দেখে আমরাও বড় হয়েছি। স্কুল-কলেজে ইংরেজি একটি বিষয় হিসেবে পড়ানোও হয়। বাংলা মিডিয়াম, ইংলিশ মিডিয়াম- এসব অবান্তর বিতর্ক বাদ দিয়ে দুই ভাষাতেই দখল আনলে বিশ্বমঞ্চে সমান তালে পাল্লা দেয়া সম্ভব। বাংলা ভাষাকে ভালবাসার অর্থ যেন অন্য কোনও ভাষাকে ঘৃণা করা না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

তৃতীয় ভাষা যেটি আমি রপ্ত করেছিলাম তা হিন্দি। বলিউড মুভি, গান আর স্যাটেলাইট চ্যানেলের বাঁধ যখন ভেঙে গেল, আমি ভাবলাম হয় আমি এই জোয়ারে পাল ভাসাবো না হয় নিজেই হাবুডুবু খাবো। ভারতের সাথে রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক আর ক্রীড়াঙ্গনে টানাপোড়েন চলবে, তাই বলে ভাষাকে দোষারোপ করা সমীচীন নয়। বাংলাদেশের মাটিতে বাংলা বলাই যথেষ্ট, এমনকি ভারতেও ইংরেজি বলেই পার পেয়ে যাওয়া যায়, হিন্দি অনেক প্রদেশে কেউ বলেও না বোঝেও না। শুধু মনে রাখুন, পরিসংখ্যান অনুযায়ী হিন্দি বিশ্বের চতুর্থ ভাষা। তাদের ভাষা জেনে রাখাটা বিচক্ষণতা বৈকি।ভাষা

ভারতের মতো বাংলাদেশের আরেক ভৌগলিক প্রতিবেশী হল চীন। বিশ্ব মঞ্চে রাজনৈতিক, সামরিক, অর্থনৈতিক পরাশক্তি হিসেবে এবং জনসংখ্যার দিক থেকে চীন দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলেছে। আজকের ইংরেজি শেখার প্রয়োজনীয়তা হল আগামীর চাইনিজ শেখার সমান। যদি ব্যক্তিগত, পেশাগত, ব্যবসা এবং জাতীয় ক্ষেত্রে আগামীর জন্য প্রস্তুত থাকতে চান তবে ইংরেজির সাথে সাথে চীনা ভাষা শিখুন। নিঃসন্দেহে ভাষাটি আপাতদৃষ্টিতে কঠিন, কিন্তু মনে রাখবেন, একবার একটি ভাষার মৌলিক গঠন আর বিন্যাস রপ্ত করতে পারলে যে কোনো ভাষা শেখা সহজ হয়ে যায় কারণ প্রত্যেক ভাষারই মৌলিক কিছু ফর্মুলা থাকে যা বুদ্ধিমান শিক্ষার্থীদের অনেক দূর এগিয়ে দিতে পারে।

আমি বাংলা, ইংরেজি, হিন্দি, চাইনিজ, ফরাসি এবং স্প্যানিশ ভাষায় পারদর্শী। কিন্তু যে ভাষাটা যথার্থভাবে শিখতে না পারার আফসোস এখনও আছে সেটা হল আরবি। কৈশোরে যখন আমার নানাভাই আমাকে সহজ আরবি শিক্ষার বইটা উপহার দিয়েছিলেন এবং পাড়ার মসজিদের হুজুরকে নিয়োগ দিয়েছিলেন আমাকে কোরান শিক্ষা দেয়ার জন্য, তখন যদি নানাভাই আমাকে এভাবে বুঝিয়ে বলতেন, আরবি ভাষাটা আগে বুঝতে শেখ, বলতে শেখ, তারপর কোরান পড়, নামাজ পড়। তাতে করে এই দুনিয়ায়ও কাজ দেবে – দুবাই-সৌদিতে চাকরি-ব্যবসা করতে পারবে সহজে, আবার আখেরাতেও কাজে লাগবে।

কিন্তু নানাভাই আমাকে আরবি শেখার ইহজন্মের উপকারিতাটা পরিষ্কারভাবে না বলার কারণে আমি হুজুরের দেয়া শিক্ষা কেবল মাঝে মধ্যে নামাজ পড়ার মধ্যেই সীমিত রাখতে পেরেছিলাম। আরবি পড়তে পারি, কিন্তু বুঝি না। মসজিদের ইমাম বা মুয়াজ্জিন সাহেব – আজই তাদের সাথে যোগাযোগ করুন আর পরিষ্কারভাবে জিজ্ঞেস করুন, আরবি ভাষা আগে শেখাতে পারবেন কি না। আরবি শিখে ফেলুন, তারপর আপনি ইহজন্মে ফায়দা নেবেন না কি পরজন্মের সওয়াব হাসিল করবেন সেটা আপনার ইচ্ছা। ভাষা একটি বাহন, গন্তব্য আপনি ঠিক করুন।

তথ্য প্রযুক্তির দুয়ার উন্মুক্ত হয়েছে বাংলাদেশে অনেক আগেই। ইন্টারনেটের কল্যাণে ভাষা শিক্ষা এখন খুবই সহজ। ভাষা একটি চাবির মত, কোন দরজা আপনি খুলবেন সেটা আপনার ব্যাপার – বাংলাদেশি হওয়ার সুবাদে বাংলা, ইংরেজি, হিন্দি, আরবি ভাষা আপনার চারপাশে। চাইনিজ রেস্টুরেন্টে চাইনিজ খেতে খেতে চাইনিজ ভাষাটাও রপ্ত করে ফেলুন। নতুন নতুন বন্ধুত্ব, ব্যবসা, ভ্রমণ -বৈচিত্র্যের এই রমরমা সমারোহে ভাষা শিখে আপনিও শামিল হোন।

(এ বিভাগে প্রকাশিত মতামত লেখকের নিজস্ব। চ্যানেল আই অনলাইন এবং চ্যানেল আই-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে প্রকাশিত মতামত সামঞ্জস্যপূর্ণ নাও হতে পারে।)

FacebookTwitterInstagramPinterestLinkedInGoogle+YoutubeRedditDribbbleBehanceGithubCodePenEmail