চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ব্রেক্সিট: সময় বাড়াতে রাজি ইইউ

আগামী ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত ব্রেক্সিট কার্যকরের সময়সীমা বাড়াতে একমত হয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবং যুক্তরাজ্য। বেলজিয়ামের ব্রাসেলসে ইইউ’র বিশেষ সভায় ৫ ঘণ্টার জরুরি বৈঠকের পর এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বৈঠক শেষে এক টুইটবার্তায় ইউরোপীয় কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড টাস্ক সময়সীমা বাড়ানোর কথা জানান। সেখানে তিনি তার ‘ব্রিটিশ বন্ধুদের’ উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘দয়া করে এই সময়টা নষ্ট করবেন না।’

ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে যুক্তরাজ্যের সুবিধাজনক বিদায়ের লক্ষ্যেই এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে ইইউ।

বিজ্ঞাপন

ব্রাসেলসের বৈঠক শুরুর আগে প্রায় এক ঘণ্টা ধরে সদস্যদের সামনে একটি প্রেজেন্টেশন করেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী টেরেসা মে। প্রেজেন্টেশনে তিনি ব্রেক্সিটের সময়সীমা বাড়ানোর পক্ষে বেশকিছু যুক্তি তুলে ধরেন।

এরপর ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ইইউ নেতাদের বলেন, তিনি চাইছেন যুক্তরাজ্যের ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে সরে যাওয়ার তারিখটি আগামী ৩০ জুন থেকে পেছানো হোক। কিন্তু যেন সুযোগ রাখা হয় যে, এর আগে তার খসড়া ব্রেক্সিট চুক্তি পার্লামেন্টে পাস হলে বেঁধে দেয়া সময়ের আগেই যুক্তরাজ্য বেরিয়ে যেতে পারবে।ব্রেক্সিট-ইইউ-সময় বাড়ানোর সিদ্ধান্ত

মে’র যুক্তি উপস্থাপনের পরই আলোচনায় বসেন ইইউ সদস্যরা। বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত ‘নমনীয় বা সুবিধাজনক শর্তে সময় বাড়ানো’র সিদ্ধান্ত হয়। অর্থাৎ, যুক্তরাজ্য আগে প্রস্তুত হলে নির্ধারিত সময়ের আগেই ব্রেক্সিট প্রক্রিয়া শুরু করতে পারবে।

ইউরোপীয় কমিশনের সিদ্ধান্তের ফলে দ্বিতীয়বারের মতো ব্রেক্সিট চুক্তি থেকে সরে আসার সময় পেলো যুক্তরাজ্য।