চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা ম্যাচ কখনও ফ্রেন্ডলি হয় না’

ক্রিকেটে ভারত-পাকিস্তান বা ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়ার ম্যাচ অন্যরকম উত্তাপ ছড়ায়। ফুটবলে একইরকম উত্তেজনা সৃষ্টি করে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা ম্যাচ। সেই ম্যাচ হোক ফ্রেন্ডলি বা কোনো আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টের। আরেকটি ম্যাচে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী মুখোমুখি হওয়ার আগে চিরকালীন সেই উত্তাপের কথা মনে করিয়ে দিয়েছেন আর্জেন্টিনার মাউরো ইকার্দি।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার সৌদি আরবের রিয়াদে আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচে পরস্পরের মুখোমুখি হতে যাচ্ছে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা। কিন্তু আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার ইকার্দি মনে করেন, ব্রাজিলের সঙ্গে ‘ফ্রেন্ডলি’ ম্যাচ বলে কিছু হয় না!

রাশিয়া বিশ্বকাপে ব্রাজিল বা আর্জেন্টিনা কেউই সমর্থকদের প্রত্যাশাপূর্ণ করতে পারেনি। বিশ্বকাপের পরে আর্জেন্টিনা দল থেকে আপাতত দূরে রয়েছেন লিওনেল মেসি। নতুন কোচ লিয়োনেল স্কোলানি চেষ্টা চালাচ্ছেন নতুন একটা দল গড়ে তোলার। যে দলে ফিরে এসেছেন ইন্টার মিলানোর ইকার্দি। যে ইকার্দিকে বিশ্বকাপে না নিয়ে যাওয়ায় বিতর্কের ঝড় উঠেছিল।

সেই ইকার্দি এখন বলছেন, ‘ব্রাজিল বনাম আর্জেন্টিনার ম্যাচ কখনও বন্ধুত্বপূর্ণ হতে পারে না। ফলে এই ম্যাচকে ফ্রেন্ডলি বলা ঠিক নয়। একবার মাঠে নামলে কারও মনে থাকে না, ম্যাচটা আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি না অন্যকিছু।’

বিজ্ঞাপন

নিজের সম্পর্কে ইকার্দি বলেছেন, ‘আমি ভালোই ছন্দে আছি। শারীরিকভাবেও ভালো জায়গায় আছি। দলের সঙ্গে পুরোদমে অনুশীলন করছি। যেটা আগেরবার ঘটেনি। আমরা এখন আর্জেন্টিনার একটা নতুন দল গড়তে চাইছি।’

সেই লক্ষ্যে নতুনদের নিয়েই পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাচ্ছেন আর্জেন্টিনার কোচ। রাশিয়া বিশ্বকাপ দলে থাকা মাত্র তিন ফুটবলার এখন আর্জেন্টিনা দলে। এই নতুন দল নিয়েই ইরাকের বিরুদ্ধে শেষ প্রীতি ম্যাচে জিতেছে আর্জেন্টিনা। যা নিয়ে ইকার্দি বলেছেন, ‘ম্যাচটা কিন্তু সোজা ছিল না। তারা(ইরাক) যথেষ্ট লড়াই করেছিল। পাল্টা আক্রমণে উঠে আসছিল। কিন্তু কোচের কথা মতো খেলেই আমরা সাফল্য পেয়েছিলাম।’

ব্রাজিল ম্যাচ যে আর্জেন্টিনার কাছে কতটা গুরুত্বপূর্ণ, তা পরিষ্কার হয়ে যাচ্ছে ইকার্দির কথাতেই। এ ফরোয়ার্ড বলেছেন, ‘এই ম্যাচের গুরুত্ব আমাদের এই নতুন দলটার কাছে অনেক। আর্জেন্টিনার ফুটবলকে আমরা নতুন দিকে নিয়ে যেতে চাইছি। ঠিক মতো এগোতে গেলে এইসব ম্যাচে আমাদের ভালো খেলতেই হবে।’

ইকার্দি ফ্রেন্ডলি ম্যাচ না মানতে চাইলেও ম্যাচের আগেরদিন মেসি অনুপস্থিতিতে হতাশার কথা জানিয়েছেন নেইমার। ব্রাজিল সুপারস্টার বলেছেন, ‘আন্তর্জাতিক ফুটবলে তার এই অনুপস্থিতি ‘ফুটবলের জন্য কিছুটা দুঃখের’।

নেইমারের ভাষায়, ‘এটা ফুটবলের জন্য দুঃখ। ফুটবলে মেসিকে আমাদের লম্বা সময় ধরে পাওয়া দরকার। তিনি যত বেশিদিন খেলবেন, ফুটবল অনুরাগীদের জন্য সেটা তত ভালো।’