চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ব্যাটিংয়ে ফিরলেন সাকিব

লন্ডনের অনুশীলনের প্রথম দিনে ট্রেনিং সেশনটা ছিল ঐচ্ছিক। ক্রিকেটাররা চাইলে নিতে পারতেন বিশ্রাম, চাইলে করতে পারতেন অনুশীলনও। দুজন বাদে বাকি টাইগার ক্রিকেটাররা একটু অবসর সময়ই কাটালেন। যে দুজন অনুশীলন করেছেন তাদের একজন যেকোনো মূল্যে অনুশীলন করবেন জানাই ছিল, তিনি মুশফিকুর রহিম। তবে অন্যজনের নামটাই বয়ে আনল স্বস্তি, তিনি সাকিব আল হাসান! ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে খেলতে না পারা অলরাউন্ডার ব্যাট হাতে নিয়েছেন।

আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সাইড স্ট্রেইনের চোটে পড়ে আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে খেলা হয়নি সাকিবের। একেবারেই যে খেলতে পারতেন না এমনও নয়। তবে বিশ্বকাপের মত বড় আসরকে সামনে রেখে ঝুঁকি নিতে চায়নি টিম ম্যানেজমেন্ট। খেলবেন বা খেলবেন না, সেই সিদ্ধান্তটা সাকিবের উপরই ছেড়ে দেয়া ছিল। শেষ পর্যন্ত ফাইনালে নামা হাতছাড়া হয়ে গেছে।

বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশের প্রথম আন্তর্জাতিক ট্রফি জেতা ফাইনালটা খেলা হয়নি, খানিকটা আক্ষেপ থাকতেই পারে সাকিবের, ব্যাটে-বলে দারুণ ফর্মে ছিলেন। আপাতত পেছনে ফিরে তাকানোর সুযোগ নেই। দুয়ারে বিশ্বকাপ। সেখানে ফর্মে থাকা সাকিবকে খুব দরকার পড়বে দলের। সেজন্য প্রস্তুত হতে অনুশীলনে ঘাটতি রাখছেন না সাকিব। তাইতো ঐচ্ছিক অনুশীলনের দিনেও মাঠে ঘাম ঝরালেন।

বিজ্ঞাপন

কার্ডিফে যাওয়ার আগে লেস্টারে ঘাঁটি গেড়েছে বাংলাদেশ দল। গ্রেস রোডের সেন্টার উইকেট নেটে প্রথমদিনে ব্যাটিং অনুশীলন করেছেন সাকিব-মুশফিক দুজনই। বেশ স্বাচ্ছন্দ্যেই ব্যাটিং করেছেন সাকিব, করেছেন রানিংও। চোট থেকে ফেরার পর যে অস্বস্তিটা থাকে সেটা দেখা যায়নি টাইগার সহ-অধিনায়কের মাঝে।

অনুশীলন করেছেন মুশফিকও

মাঠে অনুশীলন না করলেও বাকিরা ঠিকই ঘাম ঝরিয়েছেন। সবাই কম-বেশি জিমে সময় কাটিয়েছেন।

বিসিবির উদ্যোগে লেস্টারে চারদিনের অনুশীলন শেষে কার্ডিফে শুরু হবে বাংলাদেশের আনুষ্ঠানিক বিশ্বকাপ অনুশীলন, আইসিসি তখন দলগুলোর দায়িত্ব নেবে। ২ জুন লন্ডনে সাউথ আফ্রিকার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে টাইগারদের বিশ্বকাপ মিশন।