চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বৈশাখকে টার্গেট করে আসছে ‘ইন্দুবালা’

গ্রামীণ প্রেক্ষাপটের গল্প নিয়ে ‘ইন্দুবালা’ নামে সিনেমা নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছিলেন তরুণ নির্মাতা জয় সরকার। তাও প্রায় এক বছর হতে চললো। স্ক্রিপ্টে একটু বেশি সময় দিতে ও আর্টিস্টদের সিডিউল ম্যানেজ করতে একটু সময় লাগলেও এবার শুটিংয়ে নামছেন তিনি। টার্গেট আগামি বৈশাখ!

বিজ্ঞাপন

হ্যাঁ। ‘ইন্দুবালা’ নিয়ে শনিবার চ্যানেল আই অনলাইনকে এমনটাই জানালেন জয় সরকার। আগামি ৫ নভেম্বর থেকে জয়পুরহাটে শুরু হচ্ছে বহুল প্রতীক্ষিত ‘ইন্দুবালা’ ছবির শুটিং।

এরআগে ছবির মহরত অনুষ্ঠানে ‘ইন্দুবালা’র গল্প নিয়ে নিজের মুগ্ধতার কথা জানিয়েছিলেন ছবিতে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করা এই সময়ের তারকা খচিত অভিনেতা আনিসুর রহমান মিলন। ইন্দুবালা ছবিতে নিজের চরিত্রের কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘ইন্দুবালা’র গল্পটি অসাধারণ। ব্যক্তিগতভাবে আমার খুব পছন্দ হয়েছে। এতে আমি গ্রামের একজন মুসলিম ছেলের চরিত্রে অভিনয় করবো। যে কিনা গ্রামের প্রভাবশালী এক হিন্দু বাড়িতে কাজ করেন। এক পর্যায় ওই বাড়ির মেয়েকে সে খুব ভালোবাসে ফেলেন। কিন্তু মেয়েটি তার ভালোবাসা বুঝতে পারেন না।

নির্মাতা জানালেন, ইন্দুকে ঘিরেই চলচ্চিত্রটির আবর্তন। ছবিটি গ্রাম্য প্রেক্ষাপটের হলেও এখানে ক্লাইমেক্স থাকবে, প্রেম, ভালোবাসা, হাহাকার সবই থাকবে। ছবিতে ইন্দুবালার চরিত্রে অভিনয় করবেন ‘সাতভাই চম্পা’ খ্যাত অভিনেত্রী কেয়া আক্তার পায়েল। যাকে ছবিতে নানা ধরনের স্ট্রাগলের মধ্য দিয়ে দিনানিপাত করতে দেখা যাবে।

জয় সরকারের প্রথম ছবি হতে যাচ্ছে ‘ইন্দুবালা’

মাসুম আজিজের গল্পে নির্মিতব্য ‘ইন্দুবালা’ চলচ্চিত্রটিতে নায়িকার বাবার চরিত্রে অভিনয় করবেন এই সময়ের ছোট ও বড় পর্দার দাপুটে অভিনেতা ফজলুর রহমান বাবু। এছাড়াও ছবিতে দেখা যাবে শহীদুল আলম সাচ্চু, সাদেক বাচ্চু, মাসুম আজিজ, আশিক চৌধুরী, শামীমা নাজনিন, গুলশান আরা পপি, কেয়া মনি, বৈশাখি, শোয়েব সাদিক ও চিত্রনায়িকা শাহনূর।

আগামি বৈশাখকে টার্গেট করে নির্মিতব্য ছবিটি নিয়ে নির্মাতার ভাষ্য, ৫ নভেম্বর থেকে জয়পুরহাটে শুরু করবো ইন্দুবালার শুটিং। টানা শুটিং করে এক লটেই শেষ করে ফেলবো। সব ঠিক থাকলে আগামি বৈশাখ উপলক্ষ্যে ছবিটি বড় পর্দায় মুক্তি দিতে চাই। আশা করছি সবাই আমাদের পাশে থাকবেন।