চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিশ্বকাপ দলে থাকতে তাসকিনের ‘দৌড়-ঝাঁপ’

তাসকিন আহমেদ গোড়ালির চোট কাটিয়ে বোলিং শুরু করেছেন বেশিদিন হয়নি। ছোট থেকে বড় রানআপে ফিরতেই নেমে যাচ্ছেন ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ খেলতে। বুধবার মিরপুরে রূপগঞ্জের হয়ে মাঠে নামার কথা এ ডানহাতি পেসারের। পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ দলটির প্রতিপক্ষ তলানিতে থাকা উত্তরা।

বিজ্ঞাপন

গত ১ ফেব্রুয়ারি সিলেট সিক্সার্সের শেষ ম্যাচে ফিল্ডিং করার সময় গোড়ালিতে চোট পান তাসকিন। ছিঁড়ে যায় লিগামেন্ট। বিপিএলে দুর্দান্ত ছন্দে থাকা এ পেসার ছিটকে যান নিউজিল্যান্ড সফরের দল থেকে। দুই মাস বিশ্রামে কাটিয়ে গত সপ্তাহে ছোট রানআপে শুরু করেন বোলিং। মঙ্গলবার নেটে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে বোলিং করেছেন সহজাত রানআপেই। তার একদিন পরই নামছেন প্রিমিয়ার লিগ খেলতে।

ফিটনেসের ছাড়পত্র পাওয়া মাত্রই তাসকিন যোগাযোগ করেন বেশ কয়েকটি ক্লাবের সঙ্গে। একাধিক ক্লাব তাকে পরবর্তী রাউন্ড অর্থাৎ, সুপার লিগ থেকে চাইলেও লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ খেলাতে চেয়েছে বুধবার লিগপর্বের শেষ ম্যাচেই। রূপগঞ্জ কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদও জানালেন তাসকিন একটি ম্যাচ বেশি খেলানোর সুযোগ দেয়ায়।

মঙ্গলবার সকালে মিরপুরে একাডেমি মাঠে রূপগঞ্জের হয়ে অনুশীলনে নামেন তাসকিন। বোলিং সেশন শেষ করে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে চলে যান লিগের আয়োজক সিসিডিএম’র অফিস কক্ষে রূপগঞ্জের হয়ে নিজের নাম তালিকাভুক্ত করতে। প্রিমিয়ার লিগে নামতে তাসকিনের তাড়ার কারণ কড়া নাড়ছে বিশ্বকাপ। ম্যাচ ফিটনেস আর আর বোলিংয়ের ছন্দ দ্রুত ফিরে পেতে না পারলে যে বিশ্বকাপ দলে থাকার সম্ভাবনা কমে যাবে অনেকটা।

বিজ্ঞাপন

আগামী ২৩ এপ্রিলের মধ্যেই ঘোষণা করা হবে বাংলাদেশের বিশ্বকাপ দল। তাসকিনের সে দলে থাকার সম্ভাবনা কমে গেছে বিশ্বকাপের খুব কাছে এসে ইনজুরিতে পড়ায়। প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিনের কথায় পাওয়া গেছে এমন ইঙ্গিত।

এখন প্রিমিয়ার লিগ ‘ফাইনাল পরীক্ষা’ হয়ে এসেছে তাসকিনের সামনে। দুর্দান্ত কিছু করে দেখাতে পারলে শেষ মুহূর্তে বদলাতে পারে নির্বাচকদের মনও। পেলেও পেতে পারেন বিশ্বকাপের টিকিট।

তাসকিনের তাকিয়ে থাকতে হবে সেদিকেই। বিশ্বকাপ দলে থাকার পরীক্ষায় উতরে যেতে পারবেন কিনা, সেটি বলবে মাঠের পারফরম্যান্সই। লিগ খেলার তাড়া বিশ্বকাপ খেলার স্বপ্নে বিভোর বলেই। অন্য কোনো সময় হলেও হয়তো এত ব্যতিব্যস্ত হতেন না। বিশ্বকাপ যে তাসকিনের কাছে এক স্বপ্ন।

‘এটাই (বিশ্বকাপ) আমার স্বপ্ন, এটার জন্যই এত কষ্ট করছি। শুকরিয়া আল্লাহর কাছে, খেলার অনুমতি পেয়েছি। আগামীকাল থেকে খেলতে নামব। সবার কাছে দোয়া চাচ্ছি, যাতে আমি সুস্থ থাকি, ভালো করতে পারি।’

নিজের ফিটনেস নিয়ে সংশয়ে নেই তাসকিন। পারফরম্যান্স ভালো না হলে স্বপ্নভঙ্গ হয়ে যাওয়ার শঙ্কা এ পেসারের চাপ বাড়িয়ে দিয়েছে বহুগুণ, ‘চাপ তো সবসময় অনুভব করি। ভালো না করলেই সুযোগ পাব না। ফিট না থাকলে সুযোগ পাব না। তবে এটা একটু বেশি চাপের, কারণ বিশ্বকাপ তো আমার স্বপ্নের। কারণ এটা বড় আসর। এখানে ফিট না হলে সুযোগ পাব না।’