চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিশ্বকাপের আগে ডাগআউটেও শক্তি বাড়াচ্ছে অজিরা

দুঃস্বপ্নের মতো একটা বছর কাটানোর পর আবারও ধীরে ধীরে নিজেদের পুরনো রূপে ফিরছে অস্ট্রেলিয়া। ভারতের কাছে ঘরের মাঠে হারের পর শ্রীলঙ্কাকে দিয়ে ঘুরে দাঁড়ানোর শুরু। লঙ্কানদের হোয়াইটওয়াশ করার পর ভারতের মাটিতে ভারতকে ওয়ানডে ও টি-টুয়েন্টি সিরিজে হারিয়ে বিশ্বকাপের আগে প্রতিপক্ষকে বার্তা দিয়ে রেখেছে অজিরা। সেই সঙ্গে পুরনো দুই অভিজ্ঞ সৈনিক স্টিভেন স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নারও ফিরছেন।

মাঠে শক্তি ফিরে পাওয়ার পাশাপাশি ধরে রাখার সঙ্গে সেটা বাড়ানোর দিকেও নজর দিচ্ছে অস্ট্রেলিয়া। তারই অংশ হিসেবে কোচিং স্টাফেও শক্তি বাড়াচ্ছে তারা। আসন্ন বিশ্বকাপ ও অ্যাশেজ সিরিজের জন্য সাবেক পেস তারকা ট্রয় কুলেকে বোলিং কোচ হিসেবে রাখছে। কুলে অবশ্য কিছুদিন আগে থেকেই দলের সঙ্গে আছেন। তিনি ছাড়া হেড কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গারকে সাহায্য করতে অ্যাডাম গ্রিফিথকেও নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

কুলে এর আগে ইংল্যান্ডের বোলিং কোচ ছিলেন। তার অধীনেই ২০০৫ অ্যাশেজে অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়েছিল ইংল্যান্ড। ইংলিশদের সাবেক বোলিং কোচ ডেভিড সাকের অজিদের দায়িত্ব ছেড়ে দেয়ার পরই কুলেকে নিয়োগ দেয় ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া-সিএ।

কুলে সবশেষ ভারত সিরিজের দলের সঙ্গে ছিলেন। আর গ্রিফিথের সঙ্গে ঘরোয়া ক্রিকেটে ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ার হয়ে কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে ল্যাঙ্গারের। তাছাড়া ২০১৬ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের সময় অজি দলের সঙ্গে ছিলেন গ্রিফিথ। সবমিলিয়ে বিশ্বকাপ ও অ্যাশেজের কথা মাথায় রেখে যুতসই ব্যক্তিদেরই পছন্দ করেছে অস্ট্রেলিয়া।

ভারতে সফরের ঠিক আগে কুলেকে বোলিং কোচ করে অস্ট্রেলিয়া। ফলও পায় হাতেনাতে। প্রথম দুই ম্যাচ হারের পরও পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ তারা জেতে ২-৩ ব্যবধানে। টি-টুয়েন্টি সিরিজও জেতে ২-০তে। এর মধ্যে একটি ম্যাচ বাদে প্রতিটি ম্যাচেই ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের বড় রান করা থেকে বিরত রাখে অজি বোলাররা। পুরো সিরিজে স্বাগতিক বোলারদের টপকে শীর্ষ উইকেট সংগ্রাহকের তালিকায় প্রথম তিনজনই ছিলেন সফরকারী দলের।

৫৩ বছরের কুলে সংযুক্ত আরব আমিরাতে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে চলা ওয়ানডে সিরিজের দলের সঙ্গেও রয়েছেন। সেখানে দুর্দান্ত গতিতে ছুটছে অস্ট্রেলিয়া। প্রথম দুই ম্যাচেই পাকিস্তানকে হারিয়ে সিরিজে ২-০তে এগিয়ে তারা।

প্রথম ম্যাচে সেঞ্চুরি করেছিলেন অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ। রোববার দ্বিতীয় ম্যাচেও তার সেঞ্চুরিতে জয় পায় অস্ট্রেলিয়া। পাকিস্তানের করা ২৮৪ রানের জবাবে অজিরা ম্যাচ জিতে নেয় ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে।

তবে অনেক ভালো খবরের মধ্যে অজিদের জন্য একটা দুঃসংবাদ। পাকিস্তানের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ইনজুরিতে পড়েছেন পেসার জাই রিচার্ডসন। হাতের ইনজুরির কারণে সোমবারই দেশে ফিরেছেন তিনি। বিশ্বকাপেও তার খেলা নিয়ে একটা শঙ্কা তৈরি হয়েছে।