চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিজয় দিবসের রাতে রিয়াজ-মেহজাবিনের ‘হারানো বাড়ি’

বিজয় দিবসের রাতে চ্যানেল আয়ের পর্দায় দেখানো হবে ফরিদুর রেজা সাগরের ‘বাড়ি’ সিক্যুয়ালের নতুন নাটক ‘হারনো বাড়ি’

শিশুসাহিত্যিক ফরিদুর রেজা সাগরের ‘বাড়ি’ সিক্যুয়ালে এবার নির্মিত হয়েছে মুক্তিযুদ্ধের নাটক ‘হারনো বাড়ি’। নাট্যরূপ ও পরিচালনা করেছেন ‘আলতা বানু’ খ্যাত নির্মাতা অরুণ চৌধুরী। ‘বাড়ি’ সিক্যুয়ালের এটি ১৩ তম নাটক।

বিজ্ঞাপন

‘বাড়ি’ সিক্যুয়াল নিয়ে নির্মাতা অরুণ চৌধুরী বলেন, প্রতি বছর বিজয় দিবস এলে চ্যানেল আইয়ের জন্য আমি বিশেষ নাটক নির্মাণ করি। এটা ২০১২ সাল থেকে নিয়মে দাঁড়িয়েছে। এবারের নাটকের কেন্দ্রীয় চরিত্রে দেখা যাবে চিত্রনায়ক রিয়াজ ও ছোটপর্দার ব্যস্ততম অভিনেত্রী মেহজাবিনকে। আরো অভিনয় করেছেন মামুনুর রশিদ।

নাটকে দেখা যাবে এই সময়ের দুজন তরুণ-তরুণীর গল্প। যাদের বন্ধুত্ব হয় ফেসবুকের মাধ্যমে। মেয়েটা ফটোগ্রাফার। একটি পুরনো বাড়ির সামনে দাঁড়ানো ছবি দেখে ছেলেটার প্রতি মেয়েটার আগ্রহ হয়। কারণ ওই বাড়িটা মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিবহন করে আছে। তাছাড়া যুদ্ধের সময় মেয়ের দাদা ও তার পরিবার সেখানে আশ্রয় নিয়েছিল। ছেলেটার সাথে বন্ধুত্ব হয় এবং ওই বাড়িতে নিয়ে যেতে বলে।

একদিন মেয়েটাকে নিয়ে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিবহন করা বাড়িতে নিয়ে যায় ছেলেটা, কিন্তু মেয়েটা সেখানে গিয়ে দেখে সেই পুরনো বাড়ি আর নেই। এটা ভেঙে বাংলো বানিয়ে ফেলেছে ছেলেটা। এটা দেখে ভয়ঙ্কর ক্ষেপে যায় মেয়েটা। তাদের সম্পর্কেও ফাটল ধরে। মূলত এমন হেরিটেজ সমৃদ্ধ বাড়ির একটি গল্পই দেখানো হবে নাটকে।

নির্মাতা জানান, চ্যানেল আইয়ের পর্দায় বিজয় দিবসের রাত ৮টায় প্রচার হবে নাটকটি।

এদিকে শুধু বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে নয়, আগামী ভালোবাসা দিবসকে কেন্দ্র করেও ইতিমধ্যে একটি নাটক নির্মাণ করেছেন অরুণ চৌধুরী। এ বিষয়ে তিনি জানান, ‘লোলিটা’ নামের একটি নাটকের দৃশ্য ধারণ শেষ করেছি। নাটকটির কাহিনী রচনা করেছেন মাকসুমুল আরেফিন। ভালোবাসা দিবসকে উপজীব্য করে নির্মিত নাটকে দেখা যাবে তারিক আনাম খান ও নুসরাত ইমরোজ তিশাকে। নাটকে নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন তিশা। একজন লেখকের ভূমিকায় দেখা যাবে তারিক আনাম খানকে।