চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিকাশে কৃষি পণ্যের পেমেন্ট

এখন বিকাশের মাধ্যমেই কৃষি উৎপাদন পণ্যের পেমেন্ট করতে পারবেন কৃষকেরা। তবে তার জন্য ব্যবহার করতে হবে এসিআই এর ফসলি ‘অ্যাপটি।’

বুধবার কৃষি পণ্যের উৎপাদন প্রতিষ্ঠান এসিআই লি. এবং দেশের সর্ববৃহৎ মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান বিকাশ একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করে।

কৃষকদের সুবিধার্থে এ সমঝোতা স্বাক্ষর করেন এসিআই এগ্রিবিজনেস-এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর ও সিইও ড. ফা হ আনসারী এবং বিকাশ-এর চীফ কমার্সিয়াল অফিসার মিজানুর রশীদ।

এ সেবার আওয়তায় থাকছে এসিআই-এর ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম ‘ফসলি’ এবং ‘রূপালি’ কৃষকদের জন্য নতুন পেমেন্ট অফার।

এছাড়া কৃষিকাজে প্রয়োজনীয় বীজ, সার, কীটনাশক, খামার যান্ত্রিকীকরণ এবং গবাদি পশুর স্বাস্থ্যরক্ষা পণ্য ক্রয়ে লেনদেন সম্পন্ন করতে এসিআই বিকাশ ব্যবস্থা। এবং ‘ফসলি’ ব্যবহারকারীরা খুব শীঘ্রই সরাসরি বিকাশ অ্যাপ ব্যবহার করে পেমেন্ট করার সুযোগ পাবেন।

পাশাপাশি, এসিআই এর নির্ধারিত বিক্রেতারা পণ্যের মূল্য বিকাশ মারচেন্ট একাউন্টের মাধ্যমে গ্রহণ করতে পারবেন।

এ বিষয়ে বিকাশ এর প্রধান কমার্সিয়াল অফিসার মিজানুর রশীদ বলেন, ‘এই অংশীদ্বারিত্বের ফলে সবচেয়ে বেশি লাভবান হবেন কৃষকরা। তাঁরা এখন যেকোন সময় যেকোন স্থান থেকে ঝামেলা ছাড়াই খুব সহজে বিকাশের মাধ্যমে পেমেন্ট করে কৃষি উপকরণ ক্রয় করতে পারবেন। আবার উৎপাদিত পণ্যের মূল্যও বিকাশের মাধ্যমে গ্রহণ করতে পারবেন।যা কৃষকদের সময় এবং খরচ বাঁচাবে।’

বর্তমানে প্রায় ১ লক্ষাধিক কৃষক ‘ফসলি’ ব্যবহার করছেন। এটি মাঠ থেকে ফসল কাটার ক্ষেত্রে কৃষক, খুচরা বিক্রেতা, ডিলার, সরকারি ও বেসরকারি খাতের সম্প্রসারণ কর্মকর্তাদের জন্য জিও-ডাটা ও উপগ্রহচিত্রের বিশ্লেষণ ভিত্তিক কৃষি পরামর্শ প্রদানের একমাত্র ডিজিটাল সার্ভিস।

বিকাশ, ২০১১ সাল থেকে বাংলাদেশ ব্যাংক নিয়ন্ত্রিত পেমেন্ট সেবা দানকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে বিভিন্ন ধরনের মোবাইল/ডিজিটাল ফিনান্সিয়াল সার্ভিস দিয়ে আসছে।