চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বাংলা ভাষা শিক্ষায় শিক্ষার্থীদের পিছিয়ে থাকার কারণ

প্রমিত উচ্চারণ ও সাবলীল বাচনভঙ্গিসহ আকর্ষণীয় কৌশলে পড়ানোর ঘাটতির কারণে বাংলা ভাষা শিক্ষায় শিক্ষার্থীরা পিছিয়ে থাকে বলে মনে করেন অনেক শিক্ষক। পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের সঙ্গে অংশগ্রহণমূলক পদ্ধতিতে পাঠদানেরও সুপারিশ করেছেন শিক্ষাসংশ্লিষ্টরা।

বিজ্ঞাপন

এক শিক্ষার্থী জানিয়েছেন: পড়ানোটা আনন্দদায়ক নয়, তাই ভালো লাগে না। এ শিক্ষার্থীর মতো আরো অনেকেরই হয়তো একই অবস্থা। পড়ানোর কৌশল আকর্ষণীয় না হওয়ায় বাংলা আর বাংলা ব্যাকরণের মতো বিষয়ে মনোযোগ হারায় অনেক শিক্ষার্থী।

পরিসংখ্যান তুলে ধরে সংশ্লিষ্টরা বলছেন: প্রত্যন্ত অঞ্চলের ৫০ থেকে ৬০ ভাগ প্রতিষ্ঠানে প্রমিত উচ্চারণে সাবলীল বাচনভঙ্গিতে পড়ানো হয় না।

বিজ্ঞাপন

জাতীয় শিক্ষা ব্যবস্থাপনা একাডেমি নায়েম এর মহাপরিচালক  অধ্যাপক মো. হামিদুল হক বলেন: শিক্ষকদের প্রথমত শুদ্ধ উচ্চারণে কথা বলতে হবে। দ্বিতীয়ত তার বিষয়বস্তুর ওপর একটা জ্ঞান অবশ্যই থাকতে হবে। এছাড়া অংশগ্রহণমূলক শিক্ষা পদ্ধতির ওপর জোর দেন তিনি।

জাতীয় শিক্ষা ব্যবস্থাপনা একাডেমি- নায়েম এর পরিচালনায় মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা স্তরের শিক্ষকদের জন্য বাংলা বানান রীতি, প্রমিত উচ্চারণ রীতি এবং বাচিক কলা বিষয়ে প্রশিক্ষণ চালু করা হয়েছে।

প্রশিক্ষকরা বলছেন: নিবিড় এ প্রশিক্ষণে আগামী কয়েক বছরের মধ্যে শ্রেণিকক্ষে শিক্ষক-শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণমূলক ‘শিক্ষণ পদ্ধতি’ আরো বাড়বে। শিক্ষার্থীদের কাছে আকর্ষণীয় হবে বাংলা ভাষা শিক্ষা।

বিস্তারিত দেখুন ভিডিও রিপোর্টে: