চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বাংলাদেশ এখন বিশ্বের বিস্ময়: প্রধানমন্ত্রী

উন্নয়নে বাংলাদেশ এখন বিশ্বের বিস্ময় মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, অর্থনৈতিক সক্ষমতা অর্জন করতে পেরেছি বলেই বিশ্বের উন্নত দেশগুলোর সঙ্গে প্রবৃদ্ধিতে আমরা এগিয়ে চলছি। যেটা দেখে বিশ্ব অবাক হচ্ছে। এখন যেখানেই যাই, সেই কদরটা পাই, দেশবাসীও সেই সম্মানটা পায়। 

বিজ্ঞাপন

সোমবার একাদশ জাতীয় সংসদের তৃতীয় অধিবেশনে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের পক্ষে দেয়া বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বাজেট নিয়ে নানামুখী আলোচনা-সমালোচনার জবাবে সংসদ নেতা বলেন: ‘নতুন অর্থবছরে আমাদের যে প্রস্তাবিত বাজেট এবং চলতি অর্থ বছরের সম্পূরক বাজেট এটা নিয়ে আলোচনা সংসদের ভেতর যেমন হচ্ছে; সংসদের বাইরেও ঠিক তেমনই হচ্ছে।  অনেকেই বলছেন এ বাজেট কিছুই না! যারা এ কথাগুলো বলছেন তাদের কাছে আমার প্রশ্ন, বাজেট যদি সঠিক নাই হবে তাহলে মাত্র ১০ বছরের মধ্যে বাংলাদেশ এতো উন্নয়ন করলো কিভাবে?’

বিজ্ঞাপন

‘‘অনেকেই বলেন, আমরা বাজেট দেই কিন্তু বাস্তবায়ন করতে পারি না। গত  ১৩ জুন সংসদে যে বাজেট উত্থাপন করা হয়েছিলো সেটি সংসদে পাশ হবে ২০ জুন। এরপর এ বাজেটের ওপর ভিত্তি করে আগামী বছর জুন পর্যন্ত মোট এক বছর উন্নয়ন কর্মকাণ্ড চালাবো। বছরের মাঝামাঝি এসে আমরা একটা হিসাব করি কোথায় কত টাকা ব্যয় হলো, কোন কোন উন্নয়ন প্রকল্প চলছে সেগুলো। কোন কোন প্রকল্প বাস্তবায়ন সম্ভব কোনটা কোনটা সম্ভব না, কোন খাতে আরও বেশি টাকা বরাদ্দের প্রয়োজন সেটা আমরা ঢেলে সাজাই।’’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এটা আমরা করে থাকি যাতে অর্থটা কাজে লাগে। কোন কোন খাতে বাজেট প্রয়োজন আছে বা নাই সেটা একটা নিদৃষ্ট সময় পরে ভেবে দেখার ব্যাপার আছে। কেননা, সব কাজ তো সব সময় একই গতিতে চলে না।

‘‘বাজেট বাস্তবায়ন করতে পারি না বাজেট দেই; এটা যদি বলেন, তাহলে বলবো মাত্র ৬১ হাজার কোটি টাকার বাজেট পেয়েছিলাম? ২০০৮ সালে আজ সেখানে আমরা ৫ লাখ কোটি টাকার ওপর চলে গেছি। যদি আমাদের বাস্তবায়নের দক্ষতাই না থাকবে এটা আমরা করলাম কিভাবে?

জাতীয় সংসদে সম্পূরক বাজেটের ওপর সমাপণী বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন: ২০১৮-১৯ অর্থবছরের মূল বাজেটের প্রাক্কলন ব্যয় ২২ হাজার ৩২ কোটি কমিয়ে ৪ লাখ ৪২ হাজার ৫শ’ ৪১ কোটি টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।