চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বাংলাদেশকে জঙ্গিবাদের মত মাদকমুক্ত করতে হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বাংলাদেশকে জঙ্গিবাদের মত মাদকমুক্ত করার জন্য জনগণের সহযোগিতা চাইলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মো. আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। তিনি বলেছেন: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাই মাদকের অভিশাপ থেকে দেশকে মুক্ত করতে পারবেন। কারণ বঙ্গবন্ধুর পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাই দেশের মানুষের কাছে সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়। তার ডাকে সাড়া দিয়ে বাংলাদেশের জনগণ জঙ্গিবাদের মত মাদককেও নির্মূলে সহযোগিতা করবে।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার চট্রগ্রামের রাউজানে মাদক ও জঙ্গি বিরোধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

মন্ত্রী বলেন: একটি মহল দেশকে অকার্যকর করার জন্য টার্গেট কিলিংয়ের মাধ্যমে জঙ্গিবাদের নামে অপপ্রচার শুরু করেছিল। তখন প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীকে জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর আহবান জানান। তার ডাকে সাড়া দিয়ে দেশের মানুষ জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়। জনগণের সহযোগিতায় বাংলাদেশ আজ জঙ্গি মুক্ত। এখন প্রধানমন্ত্রী মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছেন। তাই মাদক নির্মূল কার্যক্রমে আমরা দেশের মানুষের অংশগ্রহণ কামনা করছি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মাদকের ভয়াবহতার কথা তুলে ধরে শিক্ষার্থীদের তথা যুবসমাজকে মাদকের আগ্রাসন থেকে নিজেদের রক্ষা করার আহবান জানান। তিনি মাদক ব্যবসা ছেড়ে অন্য ব্যবসা করার জন্য মাদক ব্যবসায়ীদের, চোরাকারবারীদের পরামর্শ দেন। অন্যথায় কঠোর পরিণতি হবে বলে তাদেরকে সতর্ক করেন।

সমাবেশে স্থানীয় সংসদ সদশ্য এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী, চট্রগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি, চট্টগ্রামের পুলিশ সুপারসহ সমাজের বিভন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

মাদক ও জঙ্গি বিরোধী সমাবেশ শেষে মাননীয় মন্ত্রী রাউজানে নবনির্মিত পূর্ব গুজরা তদন্ত কেন্দ্র ভবনের উদ্বোধন করেন। তারপর প্রস্তাবিত দক্ষিন রাউজান থানা এবং রাউজান হাইওয়ে থানার স্থান পরিদর্শন করেন।