চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ফাইনাল মনে করেই খেলবে বাংলাদেশ

প্রথম দুই ম্যাচ জিতেই কাটা হয়ে গেছে ফাইনালের টিকিট। তৃতীয় ম্যাচে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ২১৬ রান করেও এসেছে ৯১ রানের বড় জয়ই। ফাইনালের আগে ত্রিদেশীয় সিরিজে বাংলাদেশের শেষ ম্যাচ শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। টানা তিন জয়ের পরও স্বাগতিকরা অবশ্য বৃহস্পতিবারের ম্যাচ নিয়ে নির্ভার থাকছে না।

বিজ্ঞাপন

২৭ জানুয়ারির ফাইনালে টাইগারদের প্রতিপক্ষ হতে পারে লঙ্কানরাই। জিম্বাবুয়ের চেয়ে রানরেটে এগিয়ে থাকায় তাদের সম্ভাবনা উজ্জ্বল। যে কারণে বৃহস্পতিবারের ম্যাচ যেন ফাইনালের পোশাকি মহড়া! অপরাজিত থেকে টুর্নামেন্ট শেষ করার মনছবি দেখা বাংলাদেশ দল ম্যাচটি ফাইনালের মতো গুরুত্ব দিয়েই খেলবে বলে জানালেন টেকনিক্যাল ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ ‍সুজন।

বিজ্ঞাপন

‘টুর্নামেন্টে কোন ম্যাচ আমরা হারতে চাই না। কালকের ম্যাচটা ফাইনালের মতোই গুরুত্বপূর্ণ। এটি আলাদা একটা ওয়ানডে ম্যাচ। প্রত্যেকটা ম্যাচই আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।’

বুধবার টিম হোটেলেই ছিলেন স্বাগতিক দলের ক্রিকেটাররা। কেন অনুশীলন রাখা হয়নি সে ব্যাখ্যাও দিলেন খালেদ মাহমুদ।

‘আমরা এখনও চ্যাম্পিয়ন হইনি। টুর্নামেন্টে যেহেতু ফাইনাল খেলা আছে, ওটা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। নির্ভার থাকার কোন সুযোগই নেই। সামনের কয়েকটা দিন আমরা আর বিরতি পাবো না। গতকাল খেললাম, আগামীকাল খেলব, আবার ২৭ তারিখ ফাইনাল; আজকে একটা বিরতি দরকার ছিল টিমের। ক্রিকেটের বাইরে থাকাই তাই সেটি নির্ভার থাকা নয়।’

বৃহস্পতিবার বেলা ১২টায় শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে গড়াবে বাঘ-সিংহের লড়াই। প্রথম দেখায় হাথুরুসিংহের দলকে ১৬৩ রানের বিশাল ব্যবধানে হারায় মাশরাফী-সাকিবরা। ওয়ানডে ইতিহাসে এটিই বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রানের ব্যবধানে জয়।