চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ফজর উৎসবে সেরা ছবি ‘অ্যা রাশান ইয়ুথ’

ইরানের সবচেয়ে বড় চলচ্চিত্র উৎসব ‘ফজর ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল’ এর ৩৭ তম আসরের সমাপনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হলো বৃহস্পতিবার। রাজধানী তেহরানের ভাহদাত হলে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নির্মাতা, তারকা এবং বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।

উৎসবে সেরা ছবির পুরস্কার গোল্ডেন সিমোর্ঘ জিতে নিয়েছে রাশিয়ার নির্মাতা আলেকজান্দার জোলোতুখিন নির্মিত ‘অ্যা রাশান ইয়ুথ’ ছবিটি। ছবিটি একজন তরুণ রাশান সেনাকে নিয়ে তৈরি। ছবিতে দেখা যায় প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময় জার্মান গ্যাস অ্যাটাকে দৃষ্টিশক্তি হারিয়ে ফেলেন সেই সেনা। কিন্তু শ্রবণ শক্তি প্রখর থাকায় তাকে সামনের কাতারেই রাখা হতো। কারণ তিনি ধাতব পাইপের সাহায্যে বিশেষ পদ্ধতিতে শত্রুদের প্লেনের শব্দ সবার আগে শুনতে পেতেন।

সেরা নির্মাতার পুরস্কার জিতেছেন সরৌস সেহাত। ‘ড্যান্স উইথ মি’ সিনেমার জন্য এই পুরস্কার জিতেছেন তিনি। সেরা অভিনেতার পুরস্কার জিতেছেন ডেনমার্কের জেসপার ক্রিস্টেনসেন (বিফোর দ্য ফ্রস্ট) এবং সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার জিতেছেন বুলগেরিয়ার মার্টিনা অ্যাপোস্টোলোভা (ইরিনা)।

সমাপনী অনুষ্ঠানে দেয়া বক্তব্যে উৎসবের পরিচালক রেজা মিরকারিমি ইরানের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞার নিন্দা জানান। তিনি বলেন, ‘আমরা আমেরিকার একতরফা অন্যায় নিষেধাজ্ঞার প্রতি নিন্দা জানাচ্ছি।আমাদের অর্থনীতি এবং সংস্কৃতির ক্ষতি করার উদ্দেশ্যে এই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘সব বাধা উপেক্ষা করেও এই পুরো বিশ্বের সমর্থনে এই উৎসবের আয়োজন করতে পেরেছি। ইরানের সিনেমা এগিয়ে যাবে।’

ইরানের রাজধানী তেহরানে আয়োজিত সাত দিনব্যাপী এই আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে বিভিন্ন দেশের সংস্কৃতি বিনিময় করা হয় এবং ইরানের ও আন্তর্জাতিকভাবে প্রশংসিত বিভিন্ন চলচ্চিত্র প্রদর্শন করা হয়। প্রতি বছর খ্যাতনামা চলচ্চিত্র পরিচালকদের পাশাপাশি নবীন চলচ্চিত্র পরিচালকরা তাদের নির্মিত চলচ্চিত্র এ উৎসবে প্রদর্শন করেন। ১৯৮২ সাল থেকে এই উৎসবটি চালু রয়েছে।