চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

পিএসজি ‘অযোগ্য, অপেশাদার!’

ফরাসি জায়ান্ট পিএসজিকে রীতিমত ধুয়ে দিয়েছেন আরেক ফরাসি ক্লাব নঁতের কোচ ভাহিদ হালিহোদজিচ। লিগ ওয়ানের এই কোচের মতে নিজেদের পেশাদারিত্বের প্রতি চরম অবহেলার কারণে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে দ্বিতীয় রাউন্ড থেকেই বাদ পড়েছে প্যারিসের ক্লাবটি!

বিজ্ঞাপন

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের মাঠে প্রথম লেগে ২-০ গোলে জিতেও ফিরতি লেগে নিজেদের মাঠে উল্টো ৩-১ গোলে হেরে টানা তৃতীয়বারের মতো কোয়ার্টার ফাইনালে উঠতে ব্যর্থ হয় পিএসজি। শত শত কোটি ইউরো খরচ করে নেইমার, এমবাপের মতো বিশ্বসেরা ফরোয়ার্ডদের দলে টেনেও সাফল্য না পাওয়ায় ক্লাবটির সমালোচনায় মুখর অনেকে। ১৯৯৪ সালে প্রথম ও শেষবার, পরে আর চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিতে উঠতে না পারায় পিএসজিও বেশ হতাশ!

নিজ দর্শকদের সামনে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে বাদ পড়ে যাওয়ার পেছনে কারণ হিসেবে ভিআর প্রযুক্তিকে দায় দিয়েছিলেন চোটের কারণে দলের বাইরে থাকা পিএসজির ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড নেইমার। ম্যাচের শেষ সময়ে কিমপেম্বের হ্যান্ড বলের কারণে পাওয়া পেনাল্টি থেকে ম্যানইউর গোল নিয়ে কটূক্তি করে উয়েফার তদন্তের মুখেও পড়েছেন বিশ্বের দামী ফুটবলার!

বিজ্ঞাপন

রেফারি কিংবা প্রযুক্তি নয়; ভাহিদ হালিহোদজিচ পিএসজির ব্যর্থতার পেছনে দায় দিয়েছেন ক্লাবের অপেশাদারিত্বকে, ম্যানইউকে হাল্কাভাব নেয়ার মানসিকতাকে। টিম বাসে একসঙ্গে না এসে নিজের মতো করে খেলোয়াড়দের মাঠে আসার অনুমতি দেয়ায় পিএসজি কোচ টমাস টুখেলকে এক হাত নিয়েছেন নঁতে কোচ। লা পারিসিয়ানকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এই কোচের মত, নিজেদের অবহেলার কারণেই ম্যাচ হেরেছে পিএসজি।

‘ম্যাচের আগে দলটির খেলোয়াড়দের আচরণ ছিল কল্পনার বাইরে। নইলে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচের দুইঘণ্টা আগে কীভাবে খেলোয়াড়দের নিজেদের মতো করে আসার অনুমতি দেয়া হয়?’

‘ম্যানইউ ম্যাচের আগে পিএসজির প্রস্তুতিতে ছিল মারাত্মক রকমের ভুল। একটা বড় ক্লাবের এমন ভুল কিছুতেই মানা যায় না। এ হল চূড়ান্ত অপেশাদারিত্বের নমুনা।’

‘প্যারিসে ট্রাফিক জ্যাম কিংবা দুর্ঘটনা ঘটতেই পারে(আর এ কারণে স্টেডিয়ামে পৌঁছাতে দেরি হতে পারে)। আসল শিক্ষাটা হল আপনি বাচ্চাদের মতো আচরণ করবেন, ফলটা ওই রকমই পাবেন!’