চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

পাবনায় দুই শিশু ধর্ষণের শিকার

আখতারুজ্জামান আখতার: পাবনার ভাঙ্গুড়া ও ঈশ্বরদীতে দুই শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। ভাঙ্গুড়ায় ধর্ষণের শিকার ৬ষ্ঠ শ্রেণির ওই শিশুটি (১২) এখন ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা। তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় প্রথমে ভাঙ্গুড়া এবং পরে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ধর্ষণের অভিযোগে ৪ সন্তানের জনক মজনু সরকারকে (৪০) শুক্রবার রাতে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বিজ্ঞাপন

গ্রেপ্তারকৃত মজনু একই উপজেলার পাটুলিয়াপাড়া গ্রামের নুরুজ্জামান মাস্টারের ছেলে।

বিজ্ঞাপন

পুলিশ জানায়, মজনু সরকার গত পাঁচ মাস আগে তার বাড়ির পাশের ওই শিশুকে বাড়িতে একা পেয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে এবং এ ঘটনা কারও কাছে প্রকাশ করলে তাকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। পরে অন্তঃস্বত্ত্বা হয়ে পড়লে ধর্ষণের শিকার শিশুটি তার বাবা-মা ও মজনুকে জানায়। তখন মজনু গর্ভপাত করাতে তাকে গোপনে কিছু ঔষধ সেবন করায়। ঔষধ খেয়ে সে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে গত বুধবার তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে তাকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হয়।

এ ঘটনায় মজনুকে আসামি করে ভাঙ্গুড়া থানায় মামলা দায়ের করেছেন শিশুটির বাবা।

অপরদিকে, জেলার ঈশ্বরদী উপজেলার অরনকোলা পশ্চিমপাড়া গ্রামে এক শিশুকে (১৩) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে একই গ্রামের আতিকুল ইসলাম নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় শুক্রবার রাতে মামলা হয়েছে। ধর্ষিতাকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শনিবার দুপুরে ধর্ষণের শিকার শিশু দুটির বয়স ও ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। হাসপাতালের গাইনি চিকিৎসক ডা. নার্গিস সুলতানা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।