চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

পাবনায় টর্নেডো, পাঁচ শতাধিক ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত

পাবনা প্রতিনিধি: পাবনার সাঁথিয়া এবং সুজানগর উপজেলার পাঁচটি গ্রামে টর্নেডোর আঘাতে পাঁচ শতাধিক বাড়িঘর বিধ্বস্ত হয়েছে। এ ঘটনায় ঘর ও গাছচাপায় শিশুসহ আহত হয়েছে শতাধিক ব্যক্তি।

বিজ্ঞাপন

স্থানীয়রা জানান, সোমবার রাত সাড়ে আটটার দিকে আহাম্মদপুর ইউনিয়নের চরগোবিন্দপুর (দপপাড়া) ও বদনপুর গ্রামের ওপর দিয়ে আকস্মিকভাবে প্রায় ২০ মিনিটের এ টর্নেডো প্রবাহিত হয়। টর্নেডোর আঘাতে চরগোবিন্দপুর গ্রামের টিনেরঘরসহ আধাপাকা ২০টি বসতঘর, ৩০টি গোয়ালঘর ও ৩০টি রান্না ঘরসহ প্রায় তিন শতাধিক ঘরবাড়ি বিধস্ত হয়।

এছাড়া সুজানগর উপজেলার আমিনপুর থানার আহাম্মদপুর ইউনিয়নের দুইটি গ্রাম টর্নেডোর আঘাতে লন্ডভন্ড হয়ে গেছে। সাঁথিয়া উপজেলার মিয়াপুর মোল্লাপাড়া, রসুলপুর ভাটুপাড়া, চিনাখড়া গ্রামে টর্নেডো আঘাত হানে। এসব এলাকায় ঘরবাড়ি ধ্বংসস্তুপে পরিণত হয়েছে। এসময় অসংখ্য গাছপালা ও হাজার হাজার মন রসুন ও পেঁয়াজের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

আহতদের পাবনা জেনারেল হাসপাতাল ও রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

টর্নেডোর আঘাতে পাবনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর ৩৩ কেভি লাইনের খুঁটি ভেঙ্গে ও বৈদ্যুতিক তার ছিড়ে গেছে, দুটি ট্রান্সফরমার বিকল হয়ে বিদ্যুৎ সরবরাহ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

পাবনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর জেনারেল ম্যানেজার প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম জানান, ‘টর্নেডোর আঘাতে বিদ্যুৎ বিভাগের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ৪০টি স্পটে তার ছিড়ে গেছে। দশটি খুঁটি ভেঙ্গে গেছে এবং ৫০০টি মিটার ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। ফলে কয়েক গ্রামে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।’

আহাম্মদপুর ইউপি চেয়ারম্যান কামাল হোসেন মিয়া জানান, ‘ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের একটি টিনও ব্যবহার উপযোগী নাই। ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য ৫০০বান্ডিল টিন বরাদ্দ দেয়া হলে তারা অন্তত ঘর মেরামত করে বসবাস করতে পারবে।’