চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

পরিসংখ্যান বলছে এই রান নিরাপদ

ত্রিদেশীয় সিরিজে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৩২০ রানের সংগ্রহ গড়েছে বাংলাদেশ। শিশিরের প্রভাব কম থাকায় এদিন চার পেসার নিয়ে নেমেছেন মাশরাফী। বোলিংয়ের সময় যদি শিশিরের প্রকোপ বেড়ে যায়, তাতে বিপাকে পড়তে হতে পারে টাইগারদের। পরিসংখ্যান অবশ্য বলছে এই সংগ্রহ গড়ে নিজেদের জয়ের কাজটা অনেকটাই সেরে রেখেছে স্বাগতিকরা।

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার শের-ই-বাংলায় টস জিতে ব্যাটিং নেন মাশরাফী। তামিম (৮৪), সাকিব (৬৭) ও মুশফিকের (৬২) ফিফটিতে নির্ধারিত ওভারে ৭ উইকেটে ৩২০ রানে পৌঁছায় বাংলাদেশ।

হোম অব ক্রিকেটে এর আগে ওয়ানডেতে তিনশর উপর ইনিংস হয়েছে ১৩টি, যার দুটি পরে ব্যাট করা দলের। বাকিগুলো প্রথম ইনিংসে। আর রান তাড়া করে জয়ের রেকর্ড কেবল দুটি। অর্থাৎ, মিরপুরে তিনশর উপর রান তাড়া করে জিততে পেরেছে মাত্র দুদল।

বিজ্ঞাপন

মিরপুরে সর্বোচ্চ ইনিংসটি অস্ট্রেলিয়ার, ২০১১এর ফেব্রুয়ারিতে বাংলাদেশের বিপক্ষে করা ৩৭০/৪। তবে সেটি টপকাতে পারেনি বাংলাদেশ। এই মাঠে তিনশর উপর রান তাড়ার সর্বোচ্চ রেকর্ডটি ভারতের। ২০১২ সালের এশিয়া কাপে পাকিস্তানের করা ৩২৯/৬ তারা টপকে যায় ১৩ বল আর ৬ উইকেট হাতে রেখেই।

পরের রান তাড়ার ঘটনাটি পাকিস্তানের। ২০১৪ এশিয়া কাপে টাইগারদের করা ৩২৬/৩ তারা টপকে যায় এক বল ও ৩ উইকেট হাতে রেখে।

বাংলাদেশ শের-ই-বাংলায় প্রথম ইনিংসে তিনশ পার করেছে তিনবার। এবার নিয়ে চতুর্থবার। আগের তিনবারও প্রথম ইনিংসে। হারতে হয়েছে কেবল ওই একবারই, পাকিস্তানের বিপক্ষে। বাকি দুবার ভারত ও পাকিস্তানকে তিনশ পেরোনো লক্ষ্য দিয়ে আড়াইশই পার করতে দেয়নি লাল-সবুজরা।

সব মিলিয়ে যে মাঠে তিনশ বা ততোধিক স্কোর গড়া দলের রান তাড়া করে জয়ের ঘটনা মাত্র দুটি। সেখানে দুদিন আগে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে হারা শ্রীলঙ্কার জন্য পরিস্থিতি কতটা অনুকূল সেটাই দেখার। ছন্দে থাকা টাইগার বোলিংয়ের সামনে তাদের কঠিন পরীক্ষাই অপেক্ষা করছে।