চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে যা বললেন ৪ দেশের কূটনীতিক

বিদেশী নাগরিকদের নিরাপত্তার সাম্প্রতিক সময়ে নেয়া পদক্ষেপে সন্তোষ প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, কানাডা ও অস্ট্রেলিয়া। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর সঙ্গে এই চার দেশের কূটনীতিকরা বৈঠক করে নিরাপত্তা নিয়ে শংকার কথা জানালেও সুনির্দিষ্ট কোন তথ্য দিতে পারেননি। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী জানিয়েছেন বিদেশী নাগরিকদের দেয়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা অব্যাহত থাকবে।

বিজ্ঞাপন

সম্প্রতি দুই বিদেশী হত্যাকাণ্ডের পর বাংলাদেশে নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন বেশ কয়েকটি দেশ। সে প্রেক্ষাপটেই সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, কানাডা এবং অস্ট্রেলিয়ার রাষ্ট্রদূত ও হাইকমিশনার। বৈঠকে তারা তাদের নাগরিকদের নিরাপত্তায় নেয়া সরকারের পদক্ষেপে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

বিজ্ঞাপন

আসাদুজ্জামান খান বলেন, আমরা যদিও বারবার বলছি কোনো তথ্য আছে কিনা, যদি থাকে বলেন আমরা সনাক্ত করি। আজ তারা কোনো তথ্য দিতে পারেনি। শুধু বলেছেন, আমরা সন্তুষ্ট, তবে কিছুটা শংকা আছে। তারা আরো জিজ্ঞেস করেছে, নিরাপত্তার এমন অবস্থা সব সময় থাকবে কিনা। আমরা বলেছি অবশ্যই থাকবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরো বলেন, আমি তাদের বলেছি বাংলাদেশের মানুষ অত্যন্ত অতিথি পরায়ণ তারা কখনো কোনো বিদেশীকে হত্যা করে না। বাঙ্গালিরা ধর্মভীরু কিন্তু ধর্মান্ধ নয়।

বর্তমানের মতো ভবিষ্যতেও এমন নিরাপত্তা থাকবে কিনা এমন প্রশ্নে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কুটনীতিকদের আশ্বস্ত করেছেন। কোনো তথ্য থাকলে তা জানিয়ে সহযোগিতার আহ্বান জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী বলেন বিদেশী নাগরিক হত্যার সঙ্গে আইএস কিংবা জঙ্গীগোষ্ঠি জড়িত নয়। এটি দেশের বিরুদ্ধে একটি ষড়যন্ত্র মাত্র।