চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নাম পরিবর্তনের প্রতিবাদে উত্তাল মেসেডোনিয়া

গ্রিসের সঙ্গে প্রস্তাবিত চুক্তি অনুযায়ী দেশের নাম পরিবর্তনের প্রতিবাদে বিক্ষোভে নেমেছেন মেসেডোনিয়ার বিরোধী দলীয় কর্মী ও সমর্থকরা।

বিজ্ঞাপন

রক্ষণশীল বিরোধী দল ভিএমআরও-ডিপিএমএনই’র দাবির প্রতি সমর্থন জানিয়ে সাধারণ জনগণের বিরাট একটি অংশও রাজধানী স্কোপজেতে আন্দোলনে যোগ দিয়েছে। সব মিলে আন্দোলনকারীর সংখ্যা ঠেকে কয়েক হাজারে।

ওয়াশিংটন পোস্ট জানিয়েছে, বর্তমান নাম পরিবর্তন করে নর্থ মেসেডোনিয়া না করলে দেশটিকে ন্যাটোতে যোগ দিতে বাঁধা দেবে বলে জানিয়েছিল গ্রিস। এর ফলেই বহুবার চিন্তাভাবনার পর মঙ্গলবার নাম পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নেয় মেসেডোনিয়ার সরকার।

বিজ্ঞাপন

এরপর থেকেই বিক্ষোভ শুরু করে বিরোধীরা।

বুধবার বিক্ষোভকারীরা প্রথমে বিরোধী দলের মূল কার্যালয়ের সামনে জড়ো হয়। পরে জাতীয়তাবাদী ব্যানার নিয়ে ‘মেসেডোনিয়া, মেসেডোনিয়া’ স্লোগান দিতে দিতে রাজধানীর উদ্দেশে যাত্রা শুরু করে। তাদের অভিযোগ, বর্তমান সরকার দেশের সংকট মোকাবেলায় পুরোপুরি ব্যর্থ এবং নাম পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত তারই প্রমাণ।

আর এ কারণেই ২০০৬ থেকে ২০১৬ পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকা ভিএমআরও-ডিপিএমএনই এবং এর সমর্থকরা বুধবার প্রতিবাদ র‌্যালিতে নাম পরিবর্তনের বিরোধিতার পাশাপাশি ১৮ মাস বয়সী বর্তমান সোশ্যাল-ডেমোক্র্যাট সরকারের পতন ও পুনর্নির্বাচন দাবি করতে থাকে।

দিন শেষে ভিএমআরও-ডিপিএমএনই প্রধান রিস্তিজান মিকোস্কির ভাষণের মধ্য দিয়ে প্রতিবাদ র‌্যালি শান্তিপূর্ণভাবে শেষ হয়।