চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ধোনির গ্লাভস বিতর্কে টিভি উপস্থাপককে গাভাস্কারের ‘ধমক’

ধোনির গ্লাভস বিতর্কে মুখ খুলেছেন ভারতের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান সুনীল গাভাস্কার। বিশ্বকাপে ‘আত্মত্যাগের’ প্রতীক খোদাই করা গ্লাভস ব্যবহার করতে ধোনিকে নিষেধ করায় আইসিসির বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন দেশটির অধিকাংশ সমর্থক। এমনকি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিশ্বকাপ বয়কটেরও ডাক দিয়েছেন তারা। সেটা নিয়েই সমর্থকদের একহাত নিয়েছেন গাভাস্কার।

বিজ্ঞাপন

যেসব ভারতীয় সমর্থক দেশপ্রেমের ‘দোহাই’ দিয়ে বিশ্বকাপ বয়কটের ডাক দিয়েছেন তাদের উদ্দেশ্যে গাভাস্কারের জবাব, ‘আপনারা যা ইচ্ছা করুন। কিন্তু ভারতীয় দল যদি ফিরে আসে তাহলে বিশ্বকাপ জিতবে কারা? এটা কি কখনো ভেবেছেন?

এক টেলিভিশন উপস্থাপকের একের পর এক এমন দাবির মুখে অনেকটা ধমকের সুরে মুখবন্ধ করে দেন গাভাস্কার। বলেন, ‘আপনারা শুধু কথা বলার জন্যই বলেন। কথা বলার আগে একটু ভেবেও দেখবেন।’

বিজ্ঞাপন

সাউথ আফ্রিকার বিপক্ষে ধোনি এমন একটি গ্লাভস ব্যবহার করেছেন, যার উপর খোদাই করা ভারতীয় প্যারা মিলিটারি স্পেশাল ফোর্সের ‘আত্মত্যাগের’ চিহ্ন। যদিও এইভাবে দেশে তিনি নায়ক হলেও আইসিসির কাছে খলনায়ক হয়ে যান।

ক্রিকেটের আন্তর্জাতিক নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডকে চিঠি লিখে ধোনির গ্লাভস থেকে ওই চিহ্ন সরিয়ে ফেলার অনুরোধ জানায়। আইসিসির সাফ কথা, সেনাবাহিনীর লোগো পরে খেলা আইসিসির নীতি বিরোধী। এমনকি এর জন্য ধোনিকে শাস্তির মুখোমুখি করা হতে পারে। তার এ ধরনের আচরণ আইসিসির চুক্তি ভঙ্গের সামিল।

আইসিসির কড়া নিয়ম, তাদের বা সংশ্লিষ্ট বোর্ডের স্পন্সর ছাডা় অন্যকোনো লোগো পরা ক্রিকেটারদের কাছে শাস্তিযোগ্য অপরাধ। তবে প্রথমবার এমন করায় আপাতত ধোনিকে শাস্তি দিচ্ছে না সংস্থাটি।

এরপরেই ভারতজুড়ে শুরু হয় প্রতিবাদ। আসরে নামে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডও।