চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দেশে লবণ চাষীদের দুর্দিন

দেশের লবণ চাষীদের চলছে দুর্দিন। লবণ উৎপাদনের সব উপকরণের দাম বেড়ে গেলেও মাঠ পর্যায়ে লবণের দাম নেই। আর এ কারণেই লবণ চাষের সঙ্গে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িত ৫০ লাখ মানুষ পড়েছেন বিপাকে।

লবণ চাষের অনুকুল অবস্থা ফিরিয়ে আনার জন্য জরুরি ভিত্তিতে সরকারের সুদৃষ্টি চেয়েছেন চাষীরা।

কক্সবাজার সদরের চৌফলদন্ডি গ্রামের মাঠ ও বিস্তীর্ণ জমি দেশে লবণ উৎপাদনের অন্যতম এলাকা। এখানে সমুদ্রের পানি সংরক্ষণের মাধ্যমে উৎপাদন করা হয় লবণ।

আপাতদৃষ্টিতে প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার করে লবণ উৎপাদনের এই বিষয়টি সস্তা ও সহজলভ্য মনে হলেও, মোটেও সহজ নয়। জমি লিজ থেকে শুরু করে বাজারজাত করা পর্যন্ত কানি প্রতি সনাতন পদ্ধতিতে লবণ উপাদনে ব্যয় হয় ৭২ হাজার টাকা। আর আধুনিক বা পলিথিন পদ্ধতিতে ব্যয় হয় ৮০ হাজার টাকা।

অথচ প্রতি কানিতে এবার লবণ বিক্রি হচ্ছে ৬৬ হাজার টাকা। এতে একেবারেই দিশেহারা হয়ে পড়েছেন লবণ চাষীরা।

দেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ জায়গা রাখা লবণ শিল্পের বর্তমান বেহাল অবস্থা নিয়ে আলোচনা উঠে আসে গত ২০ মার্চ কক্সবাজারে আয়োজিত আগামীর বাজেট ভাবনা নিয়ে প্রাক-বাজেট আলোচনা কৃষি বাজেট কৃষকের বাজেটেও।

এদিকে ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, লবণের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে এখনও পর্যন্ত সরকারিভাবে কোনো কার্যকরী উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়নি।

এ শিল্পকে রক্ষার স্বার্থে প্রয়োজনীয় সরকারি নজর বৃদ্ধি করা হোক, এমন আশা সংশ্লিষ্টদের।

বিস্তারিত দেখুন ভিডিও প্রতিবেদনে: