চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দুর্গা পূজার কারণে বিএনপির বিক্ষোভ কর্মসূচি পরিবর্তন

সনাতন ধর্মের উৎসব দুর্গা পূজার কারণে বিএনপির বিক্ষোভ কর্মসূচি পরিবর্তন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

বিজ্ঞাপন

তিনি জানান, একুশে আগস্টের মামলার রায়ের প্রতিবাদে মহিলা দলের কর্মসূচি ১৬ তারিখের পরিবর্তে ২১ তারিখ, শ্রমিক দলের ১৭ তারিখের পরিবর্তে ২০ তারিখ এবং ছাত্রদলের ১৮ তারিখের পরিবর্তে ২২ তারিখ করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

শনিবার নয়াপল্টনে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় বিএনপির রিজভী বলেন: আওয়ামী লীগ বরাবরই সন্ত্রাসের উর্বর জমি। তাদের বক্তৃতা, আচরণ, দেশ শাসন সর্বত্রই রক্তাক্ত সন্ত্রাসের চিহ্ন দৃশ্যমান। তারা শুধু গুম, খুন আর ক্রসফায়ারের ব্যাপক বিস্তার ঘটাতে আইন আদালতকে গড়ে তুলেছে রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসের হাতিয়ার হিসেবে।

বিএনপির এই যুগ্ম মহাসচিব বলেন: ‘বোমা হামলা শুরুই হয়েছিলো আওয়ামী লীগের আমলে। যশোরে উদীচি’র অনুষ্ঠানে বোমা হামলা, রমনা বটমূলে বোমা হামলা, কমিউনিস্ট পার্টির জনসভায় পল্টনে বোমা হামলাসহ অসংখ্য বোমা হামলা হয়েছে আওয়ামী লীগের শাসনামলে। তাহলে এগুলোর রায়ের পর্যবেক্ষণে এলো না কেন?’

তিনি আরও বলেন: এগুলোর জন্য আওয়ামী লীগ কেন দায়ী নয়? তনু, মিতুসহ অসংখ্য নারী পাশবিক নির্যাতন ও হত্যার শিকার হচ্ছে। শুধু টাঙ্গাইল জেলাতেই কলেজ ছাত্রী রুপাসহ চলন্ত বাসে তিন জন নারীকে নির্যাতন করে হত্যা করা হয়েছে।

এগুলো দু:শাসনেরই ফলশ্রুতি বলে মন্তব্য করেন রিজভী।

রিজভী বলেন: নারী নির্যাতনের এই নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি কেন রায়ের পর্যবেক্ষণে আসেনি। রায়ের পর্যবেক্ষণে রাষ্ট্রীয় সম্পদ লুটপাটের কথা নাই কেন? বাংলাদেশ ব্যাংক, সোনালী ব্যাংক, অগ্রণী ব্যাংক, রুপালী ও পুবালী ব্যাংক, ফার্মার্স ব্যাংক, বেসিক ব্যাংকসহ শেয়ার মার্কেট হরিলুটের কথা রায়ের পর্যবেক্ষণে নেই কেন? এগুলো নিয়ে জনগণের মনে নানা প্রশ্ন দানা বাঁধছে।